রোহিঙ্গা গণহত্যা বন্ধের দাবিতে আলীকদমে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা


আলীকদম প্রতিনিধি:

মায়ানমারের রাখাইন প্রদেশে সরকারি মদদে নির্বিচারে গণহত্যা ও রোহিঙ্গাদের জাতিগত নিধনযজ্ঞের বিরুদ্ধে বান্দরবানের আলীকদমে মানবন্ধন ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার সকালে আলীকদম প্রেসক্লাব চত্ত্বরে ‘মুরুং কল্যাণ ছাত্রবাস’ এর উদ্যোগে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভায় শতাধিক মুরুং শিক্ষার্থী, অভিভাবক, জনপ্রতিনিধি ও স্থানীয় লোকজন অংশগ্রহণ করেন।

আলীকদম মুরুং কল্যাণ ছাত্রাবাস থেকে মৌন মিছিল সহকারে শতাধিক শিক্ষার্থী ও অভিভাবক উপজেলার প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধনে অংশ নেয়। এতে মুরুং কল্যাণ ছাত্রাবাসের পরিচালক ইয়োংলক মুরুং, কুরুকপাতা ইউপি চেয়ারম্যান ক্রাতপুং মুরুং, আওয়ামী লীগ নেতা দুংড়ি মং মার্মা, মুরুং কল্যাণ সংসদের সভাপতি মেনদন ম্রো, ও উপজেলা স্বেচ্চাসেবকলীগের সভপতি শুভরঞ্জন বড়ুয়াসহ বিভিন্নস্তরের মুরুং জনপ্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

মনববন্ধনে ছাত্রাবাসের পক্ষে লিফলেট বিতরণ করা হয়। এতে মায়ানমারের সামরিক জান্তা সরকার কর্তৃক রোহিঙ্গাদের দমন পীড়নবন্ধের দাবি করা হয়। বলা হয়, রোহিঙ্গারা রাখাইনের আদিবাসী। ৮ম শতাব্দি থেকে লুসাঙ্গা তথা আরাকানের নাগরিক এরা। মিয়ানমারের সরকারি বাহিনীর নির্যাতনে বিগত সময়ে প্রায় ৪০ হাজারের বেশি রোহিঙ্গা মারা গেছে। উগ্রবাদী বৌদ্ধরা নারকীয় গণহত্যায় মেতেছে রাখাইনে। শিশু নারী থেকে আবালবৃদ্ধাবণিতা কেউ রেহায় পাচ্ছে না বর্বরতা থেকে। নারীদের নির্বিচারে ধর্ষণ করা হচ্ছে।

ছাত্রাবাসের পরিচালক ইয়োংলক মুরুং বলেন, মুরুং বাংলাদেশে ক্ষুদ্র জাতীসত্ত্বা। একটি ক্ষুদ্র জাতীসত্ত্বা হয়ে অপর একটি ক্ষুদ্র জাতীসত্ত্বা রোহিঙ্গাদের বাঁচাতে আমরা এ মানববন্ধনে অংশগ্রহণ করেছি। আমরা রোহিঙ্গাদের নাগরিক অধিকার দেয়াসহ হত্যা, জুলুম-নির্যাতন বন্ধের দাবি জানাচ্ছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *