রোহিঙ্গাদের সহায়তায় পৌনে ৩ কোটি ডলার দেবে যুক্তরাষ্ট্র



ডেস্ক প্রতিবেদন: মিয়ানমারে সহিংসতার মুখে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা শরণার্থীদের সহায়তায় দুই কোটি ৮০ লাখ ডলার দেবে যুক্তরাষ্ট্র।

যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাট বুধবার সচিবালয়ে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়ার সঙ্গে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের একথা জানান।

তিনি বলেন, মিয়ানমারে অভ্যন্তরীণভাবে বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের সহায়তায়ও ৩৫ লাখ ডলার দেওয়া হবে।

নতুন এই সহায়তা নিয়ে এ বছর মিয়ানমারে বাস্তুচ্যুত ও সেখান থেকে আসা শরণার্থীদের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তার পরিমাণ সাড়ে নয় কোটি (৯৫ মিলিয়ন) ডলারে দাঁড়াচ্ছে বলে জানান বার্নিকাট।

যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তার এই অর্থ দিয়ে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের আশ্রয়স্থান, খাদ্য নিরাপত্তা, পুষ্টি সহায়তা, স্বাস্থ্য সেবা ও বিশুদ্ধ পানি সরবরাহসহ বিভিন্ন সেবা দেওয়া হবে।

মিয়ানমারের রাখাইনে সেনাবাহিনীর দমন অভিযানের মুখে প্রাণ বাঁচাতে পালিয়ে আসা এই শরণার্থীদের আশ্রয় দেওয়ার জন্য বাংলাদেশ সরকারের প্রশংসা করেন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত।

শরণার্থীরা যাতে নিজেদের দেশে ফিরতে পারে সেজন্য বাংলাদেশ সরকারের প্রচেষ্টায় যুক্তরাষ্ট্র সহযোগিতা করবে বলে জানান তিনি।

এদিকে রোহিঙ্গাদের ত্রাণ সহায়তায় সৌদি আরব দেড় কোটি ডলার এবং দক্ষিণ কোরিয়া ১৫ লাখ ডলার দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে।

কয়েক দশক ধরে চার লাখ রোহিঙ্গার ভার বহন করে আসা বাংলাদেশে সম্প্রতি চার লাখের বেশি রোহিঙ্গা আশ্রয় নিয়েছে।

পালিয়ে আসা রোহিঙ্গারা বলছেন, রাখাইনে রোহিঙ্গা অধ্যুষিত গ্রামগুলোতে সেনাবাহিনী নির্বিচারে গুলি চালিয়ে মানুষ হত্যা করছে। সেখানে ধর্ষণ ও বাড়ি-ঘর জ্বালিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

সূত্র: বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *