রোহিঙ্গাদের বাড়ি ভাড়া না দেয়া এবং পরিবহনে না তোলার নির্দেশ বাংলাদেশ পুলিশের


নিজস্ব প্রতিবেদক:

রাখাইন থেকে পালিয়ে যেসব রোহিঙ্গারা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে তাদের বাড়ি ভাড়া দেয়া যাবে না ও পরিবহনে তোলা যাবে না বলে আজ শনিবার এক নির্দেশনা জারি করা হয়েছে বাংলাদেশ পুলিশ এর পক্ষ থেকে।

পুলিশের সদর দপ্তর থেকে দেয়া বিবৃতিতে বলা হয়েছে, রোহিঙ্গারা নিজ দেশে প্রত্যাবর্তন না করা পর্যন্ত নির্দিষ্ট ক্যাম্পে অবস্থান করবে। তাদের অবস্থান ও গতিবিধি শুধুমাত্র কক্সবাজারস্থ নির্দিষ্ট ক্যাম্পে অবস্থান করবে।

রোহিঙ্গারা যেন ক্যাম্পের বাইরে যাতায়াত না করতে পারেন এবং কক্সবাজারের বাইরে ছড়িয়ে পড়তে না পারেন সে লক্ষ্যে সব ধরনের পরিবহন চালক বা শ্রমিক ও সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি পুলিশ অনুরোধ জানিয়েছে রোহিঙ্গাদের যেন পরিবহন না করা হয়।

বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের আত্মীয়স্বজন বা পরিচিত ব্যক্তিদের বাড়িতে ভাড়া দিতে বারণ করে দিয়েছে পুলিশ।

রোহিঙ্গাদের আশ্রয় বা ভাড়া দেয়া বা তাদের এক স্থান থেকে অন্য স্থানে ছড়িয়ে পড়ার খবর জানলে তা স্থানীয় প্রশাসনকে জানানোর অনুরোধও জানিয়েছে পুলিশ।

ইতোমধ্যেই জাতিসংঘ জানিয়েছে যে মিয়ানমারের রাখাইন থেকে প্রায় চার লাখেরও বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে।

এসব রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেবার জন্য কক্সবাজারের উখিয়ায় আশ্রয়কেন্দ্র নির্মাণ করছে বাংলাদেশ সরকার। সেখানে রোহিঙ্গাদের নিবন্ধনও শুরু করেছে সরকার।

কিন্তু ইতোমধ্যে বেশ বেশ কজন রোহিঙ্গাকে চট্টগ্রামের বাইরে মানিকগঞ্জ ও সুনামগঞ্জ এলাকা থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *