parbattanews bangladesh

রামুতে হতদরিদ্র পরিবারকে জিম্মি করে বসত ভিটার অর্ধশতাধিক গাছ লুট

রামু প্রতিনিধি:

রামুর জোয়ারিয়ানালায় হতদরিদ্র পরিবারের সদস্যদের জিম্মি করে বসত ভিটায় রোপন করা অর্ধ শতাধিক গাছ লুট করেছে প্রভাবশালী চক্র। নিজের হাতে রোপন করা ও দীর্ঘদিন লালন করা বিপুল গাছ লুটের এ ঘটনায় বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েছেন আবুল হোছেন ও তার পরিবারের সদস্যরা।

জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়নের মিতারছড়া হাজ্বীরঘোনা এলাকার মৃত মোজাহের মিয়ার ছেলে আবুল হোছেন জানান, গত রবিবার (২৮ জানুয়ারি) সকালে একদল ব্যক্তি দা, লাঠি-সোটা সহ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তার বাড়ি ঘিরে ফেলে। এসময় অন্যান্য লোকজন তার বসত বাড়ির পাশে রোপন করা বিভিন্ন প্রজাতির গাছ কাটা শুরু করে। গাছ কাটার শব্দ শুনে তিনি আর্তচিৎকার দিলে সন্ত্রাসীরা তাকে এবং তার পরিবারের সদস্যদের মারধর করে। পাশ্ববর্তী গ্রামের এখলাস মিয়ার ছেলে কামাল এবং মোশাররফ এর নেতৃত্বে ১৮/২০ জনের একটি দল পরিকল্পিতভাবে এসব গাছ লুট করেছে। লুটকৃত গাছের মূল্য লক্ষাধিক টাকা।

তিনি আরো জানান, ৪০ বছর তিনি ওই এলাকায় বসবাস করে আসছেন। গাছ লুটের ঘটনায় জড়িতরা কামাল হোসেন ও তার পরিবারের সদস্যরা ইতিপূর্বে তার পরিবারকে ওই বসত ভিটে থেকে উচ্ছেদের চেষ্টা চালিয়েছিলো। এমনকি ইতিপূর্বে তার ঘরটি ভেঙ্গে দিয়ে ও বিপুল গাছ কেটে নিয়েছিলো। পরে এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তি ও থানা পুলিশের সহায়তা আপোষ নিষ্পত্তি করে দেন। কিন্তু এলাকার চিহ্নিত ভূমিদস্যু কামাল ও তার সহযোগীরা আবারো তার বসত ভিটার গাছপালা লুট করে তাকে বসত ভিটে থেকে উচ্ছেদের চেষ্টা চালাচ্ছে।

স্থানীয়রা জানান, আবুল হোছেন খুবই হতদরিদ্র মানুষ। তিনি পেশায় দিনমুজর। তার দূর্বলতার সুযোগ নিয়ে প্রভাবশালীরা সন্ত্রাসী কায়দায় বিপুল পরিমান গাছ লুট করে তার ভিটে-জমি জবর দখলের চেষ্টা চালাচ্ছে। ওইসব ব্যক্তিরা এলাকার জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনকেও তোয়াক্কা করছে না। এব্যাপারে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ও প্রশাসনের কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন দরিদ্র পরিবারটি।