রামুতে শিল্পপতি ফারুক আহামদের স্মরণে সভায় ও দোয়া মাহফিল


ramu pic faruk ahmed 18.04.16 (1)

রামু প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের রামুতে বিশিষ্ট শিল্পপতি মরহুম ফারুক আহামদের স্মরণে সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার সকাল ১১ টায় শিল্পপতি মরহুম ফারুক আহামদ প্রতিষ্ঠিত কাউয়ারখোপ হাকিম রকিমা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আয়োজিত এ স্মরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় বক্তারা বলেন, দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের অগ্রপথিক ছিলেন ফারুক আহামদ। একজন প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী হয়েও তিনি শিক্ষার প্রসার ও জনকল্যাণে নিজেকে উৎসর্গ করেছিলেন। রামুর অবহেলিত জনপদ কাউয়ারখোপে তিনি উচ্চ বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করে তিনি পুরো এলাকাটিকে আলোর দিশা দিয়েছেন। তিনি ছিলেন সত্যিকারের দেশ প্রেমিক। তার অবদান জাতি আজীবন শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করবে।

কাউয়ারখোপ হাকিম রকিমা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কিশোর বড়ুয়ার সভাপতিত্বে ও সহকারি শিক্ষক মোস্তফা কামালের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, রামু উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি ওসমান সরওয়ার মামুন, বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সদস্য শহীদুল্লাহ সিকদার, বিদ্যালয় অভিভাবক সদস্য নুরুল আলম ও আবদুল খালেক, কাউয়ারখোপ স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নুরুল ইসলাম নাহিদ, রামু প্রেস ক্লাবের অর্থ সম্পাদক সোয়েব সাঈদ, সাবেক ইউপি সদস্যা ডা. নেবু রানী শর্মা, বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ওসমান গনি, প্রনব বড়ুয়া প্রমূখ।

অনুষ্ঠানে বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক আলী হায়দার, সহকারী শিক্ষক ছৈয়দ আলম, লুৎফুন্নাহার, রহিমা বেগম, মোহাম্মদ আবদুল্লাহ ও দেবাশীষ চক্রবর্তী, ফেরদৌসী আকতার, আনজুমান আরা এনি, নাছির উদ্দিন, আবদুল্লাহ (ছোট), ওবাইদুল্লাহ, রাশেল উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য রামুর কাউয়ারখোপ ইউনিয়নের কৃতিসন্তান বিশিষ্ট শিল্পপতি মরহুম ফারুক আহামদ মেঘনা সী ফুডসের স্বত্ত্বাধিকারি ছিলেন। তিনি ১৯৭৫-৭৬ সনে সর্বাধিক রপ্তানিকারক হিসেবে রাষ্ট্রপতি পদক এবং জাতীয় অর্থনীতিতে অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ চারবার সিআইপি নির্বাচিত হন। তিনি নিজের অর্থায়নে প্রতিষ্ঠা করেন অনেক শিক্ষা ও সেবামূলক প্রতিষ্ঠান। যার মধ্যে কাউয়ারখোপ হাকিম রকিমা উচ্চ বিদ্যালয় উল্লেখযোগ্য। গত ১৪ এপ্রিল ছিলো কীর্তিমান এ ব্যক্তির ১৪তম মৃত্যু বার্ষিকী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *