রামুতে বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টের ফাইনালে ফতেখাঁরকুল ইউপি একাদশ চ্যাম্পিয়ন


রামু প্রতিনিধি:

কক্সবাজার রামু উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ
ফুটবল টুর্ণামেন্ট অনুর্ধ্ব-১৭ আন্তঃ ইউনিয়ন ফুটবল টুর্ণামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত
হয়েছে।

রবিবার (৯ সেপ্টেম্বর) বিকেলে রামু জোয়ারিয়ানালা বিকেএসপি মাঠে এ খেলা অনুষ্ঠিত হয়।
নির্ধারিত সময়ে খেলা ড্র হওয়ায় ট্রাইব্রেকারে গড়ায়। ফাইনাল খেলায় ট্রাইব্রেকারে ৩-২
গোলে খুনিয়াপালং ইউপি ফুটবল একাদশকে পরাজিত করে উপজেলা পর্যায়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে
ফতেখাঁরকুল ইউপি ফুটবল একাদশ।

রামু উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. লুৎফুর রহমান এর সভাপতিত্বে ফাইনাল খেলায় পুরষ্কার
বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও
আইসিটি) মুহাম্মদ আশরাফ হোসেন। তিনি বলেন, ফুটবলের হারানো ঐতিহ্যকে ফিরিয়ে আনতে সরকার এ আয়োজন করছে। সরকারের লক্ষ্য এ ধারার মাধ্যমে তৃণমূল পর্যায় থেকে ফুটবল প্রতিভা তুলে আনা ।খেলাধুলার অভাবে দেশে যুব সমাজ মাদকের দিকে ঝুঁকছে।

বর্তমানে দেশের যুব সমাজের বৃহৎ অংশ মাদকসহ বিভিন্ন অপরাধে জড়িয়ে পড়েছে। তাই খেলাধুলা চর্চার মাধ্যমে যুবসমাজকে উন্নয়নের ধারায় ফিরিয়ে আনতে সরকার জোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। উপস্থিত ছিলেন ,মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফরিদা ইয়াসমিন, রামু থানার ওসি মুহাম্মদ আবুল মনসুর , রামু থানার ওসি তদন্ত এসএম মিজানুর রহমান, রামু সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার চেয়ারম্যান নুরুল হক, ফতেখাঁরকুল চেয়ারম্যান ফরিদুল আলম, খুনিয়াপালং চেয়ারম্যান আবদুল মাবুদ, রাজারকুল চেয়ারম্যান মুফিজুর রহমান, কাউয়ারখোপ চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমদ, জোয়ারিয়ানালা চেয়ারম্যান কামাল শামসুদ্দিন আহমদ প্রিন্স, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা
মাহবুবুর রহমান, সমাজসেবা কর্মকর্তা মোজাহেদুল ইসলাম, রামুর বিশিষ্ঠ ব্যবসায়ী ও শিল্পপতি গিয়াস উদ্দিন কোম্পানী, সূর্যের হাসি ক্লিনিকের খন্দকার দেলোয়ার হোসেন, একাডেমিক সুপারভাইজার মো. তৈয়ব, ইসলামী ব্যাংক রামু শাখার ব্যবস্থাপক হারুনর রশিদ, প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার গৌর চন্দ্র দে, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. আরিফ উল্লাহ, মৎস্য কর্মকর্তা সুজাত কুমার চৌধুরী, সমবায় অফিসার সেলিম উল্লাহ, আনসার ভিডিপি
কর্মকর্তা জুয়েল ভুঁইয়া, সহকারি পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মো. সাদেকুর রহমান, রামু মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের আহ্বায়ক আনছারুল হক ভুট্টো, সদস্য সচিব সাংবাদিক খালেদ হোসেন টাপু ও ছাত্রলীগ নেতা সাদ্দাম হোসেন প্রমুখ।

খেলা পরিচালনা করেন উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক সুবীর বড়ুয়া বুলু, সহকারি রেফরি মিলটন দত্ত, সোহেল, ও উমর ফারুক মাসুম। বাছাই কমিটির দায়িত্বে ছিলেন রামু এভারেস্ট টিচিং ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ রাজু বড়ুয়া, সুকুমার বড়ুয়া, দুলাল বড়ুয়া, ছিদ্দিক আহমদ, নবু আলম।

ফতেখাঁরকুল ইউপি একাদশের টিম ম্যানেজার তরুপ বড়ুয়া, কোচ শিপন বড়ুয়া, সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন নুর উল্লাহ, সহকারী কোচ জিঠু বড়ুয়া, বিপুল বড়ুয়া আব্বু। ফতেখাঁরকুল ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন মেম্বার যথাক্রমে রাশেদা খানম, নুর নাহার বেগম, সাবেকুন নাহার, জাফর আলম, আবুল বশর, নুর আহমদ, লিটন বড়ুয়া, কামাল উদ্দিন, রুকন উদ্দিন, সন্তোষ বড়ুয়া ও মোর্শেদ আলম।

ওই ফাইনাল খেলায় সরকারি কর্মকর্তা, বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, রাজনৈতিকসহ দলের নেতা, সাংবাদিক, ক্রীড়াবৃন্দ সহ বিভিন্ন পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।এদিকে টানটান উত্তেজনাপূর্ণ ফাইনাল খেলা উপভোগ করেন হাজারো ক্রীড়ামোদী দর্শক।রামু উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক আয়োজিত এই টূর্ণামেন্টে রামু উপজেলার ১১ ইউনিয়নের ১১টি ইউপি একাদশ অংশ গ্রহণ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *