রামগড়ে বনানী টেলিকমে চুরির ঘটনায় আন্তঃজেলা চোর সিন্ডিকেটের ২জন গ্রেফতার


Ramgarh 28.4.17 copy

রামগড় প্রতিনিধি:

রামগড় বাজারের উপকন্ঠে বনানী টেলিকম নামে একটি ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানে দুঃসাহসিক চুরির ঘটনায় জড়িত দুই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এরা হচ্ছে এরশাদুল হাসান(২৫) প্রকাশ এরশাদ, প্রকাশ হাসান। সে কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার ইউছুফ নগর গ্রামের লতিফ সওদাগর বাড়ির শহীদুল ইসলাম শহীদের ছেলে। অন্যজন হচ্ছে, ফটিকছড়ির ভুজপুর থানাধীন হেঁয়াকোর পূর্বপাড়া গ্রামের মৃত অলি আহম্মদের ছেলে  লিয়াকত হোসেন(২৪)। এদের কাছ থেকে পুলিশ বনানী টেলিকমের চুরি যাওয়া মোবাইন ফোন সেটের মধ্যে দুটি স্মার্ট ফোন উদ্ধার করেছে।

পুলিশ জানায়, গ্রেফতারকৃতরা আন্ত:জেলা চোর সিন্ডিকেট দলের সদস্য। বনানী টেলিকমে চুরির ঘটনার দায় স্বীকার করে তারা আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। চুরি যাওয়া স্মার্ট ফোনের আইএম ইআই নম্বরের মাধ্যমে চোরের অবস্থান নির্ণয় এবং মোবাইল ট্রেকিংয়ের মাধ্যমে আসামী এরশাদুল হাসানকে চট্টগ্রামের বাকলিয়া থানার আব্দুল লতিফ হাটের ইসলাম সওদাগর কলোনীর জনৈক গিয়াসের বাসা থেকে গ্রেফতার করা হয়। সে ওই বাসায় ভাড়া থাকতো।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মো. সুজাউদৌলা ও এসআই আনোয়ার হোসেনের নেতৃত্বে রামগড় থানার পুলিশের একটি দল বুধবার চট্টগ্রামের ওই বাসা থেকে এরশাদকে গ্রেফতার করে। তার দেয়া তথ্য অনুযায়ী ওইদিন রাতেই হেঁয়াকোর পূর্বপাড়া বাসা থেকে লিয়াকতকে গ্রেফতার করা হয়।

এসআই সুজা উদৌলা জানান, গ্রেফতারকৃতরা চুরির ঘটনার দায় স্বীকার করে খাগড়াছড়ি চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আবু সুফিয়ান মো. নোমান’র আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

জবানবন্দিতে তারা উল্লেখ করে,  তারা দুজনসহ আন্তঃ জেলা চোর সিন্ডিকেট দলের ১২জন সদস্য ওই প্রতিষ্ঠানে চুরির ঘটনায় অংশ গ্রহণ করে। তাদের সিন্ডিকেটের মূল হোতার নাম হানিফ। তার বাড়ি কুমিল্লায়। তার ডান হাত বিকল। ১২ জনের মধ্যে লিয়াকত ছাড়া অন্য সবার বাড়ি কুমিল্লায় বলেও এরশাদ জানায়।

জবানবন্দিতে তাদের উল্লেখ করা চুরির নগদ টাকার পরিমান ও মালামালের তথ্যের সাথে সংশ্লিষ্ট মামলার এজাহারে উল্লেখ করা  বিবরণের রিরাট ফারাক রয়েছে। জবানবন্দি গ্রহণ শেষে আদালত দুই আসামীকে জেল হাজতে প্রেরণ করেন।

গত ১৯ এপ্রিল গভীর রাতে রামগড় পৌর শহরের উপকন্ঠে অবস্থিত বনানী টেলিকম নামে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সাটারের শক্ত তালা ভেঙ্গে দুঃসাহসিক চুরি সংঘটিত হয়। চোরেরা প্রতিষ্ঠান থেকে নগদ টাকা ও দামী মোবাইল ফোন সেট, মোবাইল রিচার্জ কার্ডসহ বিভিন্ন মূল্যবান সামগ্রী চুরি করে নিয়ে যায়। ঘটনায় ২০ এপ্রিল রামগড় থানায় একটি মামলা রুজু হয়।

image_pdfimage_print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *