রামগড়ে অস্ত্র ও গুলিসহ ২ ইউপিডিএফ’র সন্ত্রাসী আটক


নিজস্ব প্রতিনিধি:

খাগড়াছড়ির রামগড়ে নিরাপত্তাবাহিনী ও পুলিশের যৌথ অভিযানে একটি বিদেশী একে-২২ রাইফেল ও বিভিন্ন আগ্নেয়াস্ত্র ও গোলা বারুদসহ দুই ইউপিডিএফ’র সন্ত্রাসীকে আটক করা হয়েছে। রবিবার(১৪ জানুয়ারি) গভীর রাতে এ অভিযান চালানো হয়।

নিরাপত্তাবাহিনী ও পুলিশ জানায়, রবিবার রাত আনুমানিক আড়াইটার দিকে রামগড় থানাধীন দুর্গম এলাকা প্রেমতলায় যৌথবাহিনী অভিযানে যায়। সিন্ধুকছড়ি নিরাপত্তা জোনের উপ-অধিনায়ক মেজর তৌহিদ সালাহ উদ্দিনের নেতৃত্বে নিরাপত্তাবাহিনী ও রামগড় থানার পুলিশের একটি বিশেষ দল  ওই দুর্গম  পাহাড়ি এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন।

এসময় প্রেমতলা এলাকায় জনৈক উপজাতির একটি ঘরে তল্লাশী করতে গেলে দুজন সন্ত্রাসী পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। যৌথবাহিনী পিছু ধাওয়া করে তাদের দুজনকেই ধরে ফেলে। ধৃতরা হচ্ছে, সুজন চাকমা(২৮) ও আব্বাই মারমা(৩৩)।

পরে ওই ঘর তল্লাশী করে  ইউএসএসআর’র তৈরি একটি একে-২২ রাইফেল, একটি বড় এলজি, একটি ছোট এলজি, একে ২২ রাইফেলের ম্যাগজিন ১টি, একে-২২ রাইফেলের গুলি ১০ রাউন্ড, এলজি’র বুলেট ৪ রাউন্ড, রাম দা ১টি, টচ লাইট, মোবাইল ফোন সেট, চাঁদা আদায়ের রশীদ বই, ইউপিডিএফের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর লিফলেট ইত্যাদি উদ্ধার করা হয়।

অভিযানে অংশগ্রহণকারী রামগড় থানার এএসআই সিদ্দিক জানান, ভোর ৫টা পর্যন্ত এ অভিযান চলে। তনি বলেন, আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। পরে এদের রামগড় থানায় হস্তান্তর করা হবে।

নিরাপত্তাবাহিনীর একটি সূত্র জানায়, আটককৃতরা ইউপিডিএফের সশস্ত্র গ্রুপের সদস্য। এদের নিয়ন্ত্রণে ওই এলাকায় চাঁদা আদায়সহ সকল অপতৎপরতা পরিচালিত হয়। তবে এ ব্যাপারে অভিযুক্ত সংগঠনটির পক্ষ থেকে কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

নিরাপত্তাবাহিনীর একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানান, আটককৃতরা ইউপিডিএফের সশস্ত্র গ্রুপের সদস্য। এদের নিয়ন্ত্রণে ওই এলাকায় চাঁদা আদায়সহ সকল অপতৎপরতা পরিচালিত হয়ে আসছে দীর্ঘ দিন। তারা ওই প্রেমতলায় নানান ভাবে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে মরিয়া হয়ে উঠে। এতে ওই এলাকার শান্তি শৃঙ্খলা বিঘ্নিত হচ্ছিল। এজন্য প্রেমতলায় নিরাপত্তাবাহিনীর গোয়েন্দা তৎপরতা বৃদ্ধি করা হয়। তারই ধারাবাহিকতায় গোপন তথ্যের ভিত্তিতে আমরা এ অভিযান পরিচালনা করি। অভিযানে আটককৃতরা ইউপিডিএফের সক্রিয় সদস্য। তাদের ধরার বিষয়ে নিরাপত্তাবাহিনী দীর্ঘ দিন কাজ করছে। এ অভিযান, আটক এবং উদ্ধার তারই সফলতা  বলে প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে নিরাপত্তাবাহিনী দাবি করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *