parbattanews bangladesh

‘রাজস্থলীতে সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ ও অস্ত্রধারীদের রেহাই দেওয়া যাবে না’

রাজস্থলী প্রতিনিধি:

রাজস্থলী উপজেলায় রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশীদ বলেছেন, সন্ত্রাসী, চাঁদাবাজ ও অস্ত্রধারী কারো বন্ধু নয়। সে যে দলের হোক না কেন, তাদেরকে প্রতিহত করতে হবে। সন্ত্রাসীরা দেশের শত্রু। তাই শান্তি প্রিয় এ উপজেলায় যদি কেউ সন্ত্রাসী কার্যকলাপ করে, তাদেরকে আইনের আওতায় এনে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

সোমবার (২৮ মে) উপজেলা কৃষি অফিসার হাসিবুল হাসানের উপস্থাপনায় এক আলোচনা ও মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে তিনি এসব কথা বলেন।

এতে সভাপতিত্ব করেন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুশফিকুর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান উথিনসিন মারমা, ভাইস চেয়ারম্যান অংনুচিং মারমা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ক্রয়সুইউ মারমা, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রুইহ্লাঅং মারমা, জেলা প্রশাসকের সফর সঙ্গী সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সিরাজুল ইসলাম, থানা অফিসার ইনচার্জ এসএম মাহবুবুল আলমসহ হেডম্যান, কার্বারী, মেম্বার, চেয়ারম্যান, উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারি ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

সভা শেষে প্রধান অতিথি ৮ জন ভিক্ষুককে গবাদি পশু (গরু ও ছাগল) এবং আয়বর্ধন উপকরণ উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে বিতরণ করেন। এ সময় জেলা প্রশাসক বলেন, বাংলাদেশকে ভিক্ষুকমুক্ত করতে বর্তমান সরকার বদ্ধ পরিকর। নবীর শিক্ষা করো না ভিক্ষা মেহনত করো সবে। এ শ্লোগানকে সামনে রেখে যারা কর্ম করে অর্থ উপার্জন করার ক্ষমতা রাখে তাদের জন্য ভিক্ষা করা আসলে লজ্জাজনক। তারা ভিক্ষা ছেড়ে দিয়ে যে কোন স্থানে কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করেতে পারবেন। ভিক্ষুক পুনর্বাসনের জন্য বর্তমান সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

পরে জেলা প্রশাসক এই উপজেলাকে ভিক্ষুকমুক্ত ঘোষণা করেন এবং ওয়াইফাই নেটওয়ার্ক উদ্বোধনসহ চলতি বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাবিখা, কাবিটা ও টিআরএর কার্যক্রম এবং একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের কাজ পরিদর্শন করেন।