রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ


রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি:
বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি রাঙ্গামাটি ইউনিটের দ্বিতীয় মেয়াদেও সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পাওয়া রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমার বিরুদ্ধে সাধারণ সম্পাদকের অননুমোদিত বিল স্বাক্ষরের মাধ্যমে আর্থিক অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ এনেছে সংস্থাটির অপসারিত কমিটির নেতাকর্মীরা । বৃহস্পতিবার (২৩ নভেম্বর) সকালে শহরের একটি স্থানীয় রেস্টুরেন্টে অনুষ্ঠিত সাংবাদিক সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন নেতারা।

এ সময় সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, অপসারিত কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান ও সাবেক পৌর মেয়র সাইফুল ইসলাম চৌধুরী ভূট্টো, সাধারণ সম্পাদক এম জিসান বখতেয়ার উদ্দীন, সদস্য ডা. গঙ্গা মানিক চাকমা নেইলি প্রু মারমা মেরি ও জসিম উদ্দিন।

সাংবাদিক সম্মেলনে বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, গত ১৩ জুন রাঙামাটিতে ভয়াবহ পাহাড়ধসের ঘটনায় রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির কেন্দ্রীয় সদর দপ্তর থেকে দফায় দফায় ১০ লক্ষ টাকা এসেছিলো, তার খরচ যথাযথভাবে না হওয়ায় বিলের বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন অপসারিত সদস্যরা। পরে ত্রাণ কার্যক্রমের বিল ভাউচার যাচাই বাচাই করতে গিয়ে ‘থলের বিড়াল বের হতে শুরু করে’। আর এই অনিয়মের প্রতিবাদ করার কারণেই রাঙ্গামাটি রেডক্রিসেন্ট এর ইতিহাসে এই প্রথম গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় নির্বাচিত কমিটিকে অন্যায়ভাবে অপসারণ করে দলীয় লোকদের পুনর্বাসন করে নতুন আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে সাংবাদিক সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়েছে।

বক্তারা রেড ক্রিসেন্টের মতো স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠানকে দলীয়করণ না করার আহবান জানিয়ে দুদকের মাধ্যমে আর্থিক দুর্নীতি ও অনিয়মের বিষয় খতিয়ে দেখার দাবি জানান।

উল্লেখ্য, রাঙ্গামাটি রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের আর্থিক দুর্নীতি ও অনিয়মসহ বিভিন্ন অভিযোগে ইউনিট কর্মকর্তাকে অন্যত্র বদলি করে গত ৫ নভেম্বর রাঙ্গামাটি রেড ক্রিসেন্ট ইউনিটের নির্বাচন পরিষদ ভেঙ্গে দিয়ে পরিষদ থেকে নতুন এডহক কমিটিকে অনুমোদন দেয়া হয়। এই প্রক্রিয়াকে চ্যালেঞ্জ করে উচ্চ আদালতে রিট করা হলে আদালত ১৩ নভেম্বর নতুন এডহক কমিটির উপর স্থগিতাদেশ দেয়। এর মধ্যে রাঙ্গামাটি রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির সদস্যরা সংবাদ সম্মেলন করে রেড ক্রিসেন্টের উদ্ভুত পরিস্থিতর জন্য রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানকে দায়ী করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *