রাঙামাটি জেলা বিএনপির গাড়ি বহরে ছাত্রলীগের হামলা


নিজস্ব প্রতিনিধি:

ঈদ উল আযহা উপলক্ষ্যে কাপ্তাইয়ে উপজেলা নেতৃবৃন্দের বাসায় দাওয়াত খেতে যাওয়া রাঙামাটি জেলা বিএনপির গাড়ি বহরে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করেছে উপজেলা ছাত্রলীগের একদল নেতাকর্মী।

শুক্রবার দুপুরে কাপ্তাই চিৎমরম কিয়াং ঘাটে এই ঘটনা ঘটানো হয়। উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সুমনের নেতৃত্বে হামলা চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে রাঙামাটি জেলা বিএনপি। দলটির জেলা সাধারণ সম্পাদক দীপন তালুকদার দীপু এমন অভিযোগ করেছেন। এই ঘটনার প্রতিবাদে বিএনপি ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা রাঙামাটি শহরে বিক্ষোভ মিছিল করেছে শুক্রবার বিকেলে।

জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাডভোকেট সাইফুল ইসলাম পনির জানিয়েছেন, একটি উৎসবমূখর পরিবেশে আমরা জেলা বিএনপির সভাপতি হাজী মো. শাহআলম এর নেতৃত্বে জেলা বিএনপির সিনিয়র কয়েকজনসহ ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দ পবিত্র ঈদ উল আযহার দাওয়াত খেতে শুক্রবার দুপুরে কাপ্তাইয়ে যাই।
এসময় চিৎমরম কেয়াং ঘাটে আমাদের গাড়ি রেখে আমরা কর্ণফূলী নদীর ওপারে দাওয়াত খেতে গেলে আমাদের জেলা বিএনপির সভাপতির মালিকানাধীন গাড়িটি ভাংচুর করে।

এ্যাডভোকেট সাইফুল ইসলাম পনির বলেন, নূন্যতম ঝক্কি-ঝামেলা ছাড়াই আমাদের সাথে এই ধরনের ন্যাক্কারজনক আচরন করা হয়েছে। একটি সুষ্ঠু সুন্দর পরিবেশের রাজনৈতিক পরিবেশে গাঁয়ে পড়ে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আমাদের গাড়ি ভাংচুর চালিয়েছে।

এদিকে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক দীপু জানান, সারাদেশের সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায়, এই ঘটনায় আমরা কোনো মামলার দিকে যাইনি। কারণ আমরা মামলা করেও কোনো ন্যায় বিচার পাবোনা এটা বেশ ভালো করে জানি। তবে আমরা ঘটনার পরপরই উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অংসুছাইনকে বিষয়টি জানালে তিনি বিষয়টি সম্পর্কে খোঁজ নিয়ে তার দলের কেউ জড়িত থাকলে ব্যবস্থা নেওয়া হয়ে বলে আমাকে আশ্বস্থ করেছেন।

এদিকে, রাঙামাটি জেলা ছাত্রদলের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আরজ হোসেন সুমন কর্তৃক গণমাধ্যমে প্রেরিত প্রেস বার্তায় রাঙামাটি জেলা ছাত্রদলের পক্ষ থেকে জানানো হয়, রাঙামাটি জেলা বিএনপি’র সভাপতি আলহাজ্ব শাহ আলম ভাই সহ ছাত্রদল,যুবদল ও সেচ্ছাসেবক দলের নেতৃবৃন্দগণ ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করতে কাপ্তাই যাওয়ার পথে চিদমরং এলাকায় গাড়ীতে হামলা চালিয়ে গাড়ির কাঁচ ভাংচুর করে কাপ্তাই উপজেলার স্থানীয় ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীরা, সন্ত্রাসীরা তিনটি মোটর সাইকেলে করে এসে এই হামলায় অংশ নেয়। রাঙামাটি জেলা ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দগণ এই হামলার তিব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

হামলায় অংশ নেওয়া সন্ত্রাসীদের আইনের আওতায় এনে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবি করেছেন এবং হুশিয়ার করে দিয়েছেন ভবিষৎএ এই ধরনের হামলা করা হলে রাজপথে কঠিন জবাব দেওয়া হবে। এই সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে রাঙামাটি শহরে তাৎক্ষনিক বিকেল ৫.০০ ঘঠিকায় জেলা ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

মিছিলে জেলা ছাত্রদলের সহ-সভাপতি মোঃ মানিক, আবু সুফিয়ান রেজা, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ বেলাল হোসন সাকু সহ ছাত্রদল, যুবদল, সেচ্ছাসেবক দলের বিবিন্ন স্তরের নেতা ও র্কমীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। মিছিল শেষে দলীয় কার্যালয়ের সামনে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

এদিকে রাঙামাটি জেলা বিএনপির গাড়ি বহরে হামলায় ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা এ্যাডভোকেট দীপেন দেওয়ান। সংবাদ মাধ্যমে প্রেরিত প্রেস বার্তায় দীপেন দেওয়ান বলেন, এই ধরনের ন্যাক্কারজনক হামলার ঘটনাই প্রমান করে দেশের মানুশের স্বাধীনতা বলতে কিছুই নেই। কাপ্তাইয়ে রাঙামাটি জেলা বিএনপির সভাপতির গাড়ি বহরে হামলার ঘটনাই তার উজ্জল দৃষ্টান্ত। দীপেন দেওয়ান এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে ঘটনার সাথে জড়িত সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে প্রশাসনের নিকট জোর দাবি জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *