মাড়ির সমস্যা থেকে হতে পারে কোলন ক্যানসার


পার্বত্যনিউজ ডেস্ক:

প্রায়ই মাড়ির সমস্যা দেখা যায়। কারণে অকারণে ফুলে ওঠে মাড়ি। ব্যাথা শুরু হয় দাঁতে। সত্যিই কি অকারণে মাড়ির সমস্যা শুরু হয়?

মাড়ির অসুখকে চিকিৎসার ভাষায় পিরিয়ডনটাইটিস বলা হয়। ব্যাকটেরিয়াল ইনফেকশনের জন্যই মাড়িতে এই রোগ হয়, যার ফলে দাঁতের নরম টিশ্যুগুলি নষ্ট হয়ে যায়। আর এ থেকে ভবিষ্যতে ফুসফুস, প্যানক্রিয়াস ও কোলনের ক্যানসারে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের টাফট ইউনিভার্সিটির গবেষকরা মাড়ির সমস্যা নিয়ে একটি গবেষণা করেন। ‘ব্রিটিশ জার্নাল অফ ক্যানসার’-এ এই গবেষণার রিপোর্টটি প্রকাশিত হয়।

এই গবেষণার মাধ্যমেই তাঁরা এই সিদ্ধান্তে উপনীত হন যে, যাদের দাঁতের সমস্যা রয়েছে বা দাঁতই নেই, তাঁদের মধ্যে ৮০ শতাংশের কোলন ক্যানসার হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। শুধু কোলন ক্যানসারই নয়, তাঁদের ফুসফুসেও ক্যানসার হতে পারে।

ট্রেপোনেমা ডেন্টিকোলা নামে একটি ব্যাকটেরিয়ার জন্যই মাড়ির ভিতর বিভিন্ন রোগ হয়। এই ব্যাকটেরিয়া প্যানক্রিয়াসেরও ক্ষতি করে। মাড়ির ভিতর এই রোগ হলেও, ধীরে ধীরে সারা শরীরে ছড়িয়ে পড়ে এই ব্যাকটেরিয়া।

এই ব্যাকটেরিয়ার কারণে শরীরের বিভিন্ন জায়গায় টিউমর পর্যন্ত হতে পারে, এমনই জানিয়েছেন গবেষকরা।তাই মাড়িতে সমস্যা হলে দ্রুত চিকিৎসা নেওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন গবেষকরা। এই ধরনের রোগ এড়াতে মাড়ি ও দাঁতের বিশেষ ভাবে যত্ন নেওয়াও উচিত বলে জানিয়েছেন তাঁরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *