মানিকছড়িতে শিক্ষকদের হেনস্থা করার অভিযোগে শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ


 

নিজস্ব প্রতিবেদক, খাগড়াছড়ি/মানিকছড়ি  প্রতিনিধি:

খাগড়াছড়ির মানিকছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আহসান উদ্দীন মুরাদের বিরুদ্ধে শিক্ষকসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের সাথে অসদাচরণ, অপদস্থ ও হেনস্থা করার প্রতিবাদে ও তার অপসারণের দাবিতে মানিকছড়িতে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সহস্রাধিক শিক্ষার্থী সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে।

শনিবার (২০ জানুয়ারি) সকাল ১০টা থেকে খাগড়াছড়ি-চট্টগ্রাম আঞ্চলিক সড়ক প্রায় এক ঘন্টা অবরোধ করে রাখার পর প্রশাসনের আশ্বাসে দুই দিনের আল্টিমেটাম দিয়ে অবরোধ তুলে নেয় শিক্ষার্থীরা। এ সময় রাস্তার দু’পাশে অসংখ্য যানবাহন আটকা পড়ে।

শনিবার সকাল ১০টার দিকে বিভিন্ন বিদ্যালয়ের সহস্রাধিক শিক্ষার্থী মিছিল নিয়ে মানিকছড়ি উপজেলা পরিষদের সামনে খাগড়াছড়ি-চট্টগ্রাম আঞ্চলিক সড়কে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আহসান উদ্দীন মুরাদের অপসারণ দাবিতে শিক্ষার্থীরা রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে বিভিন্ন শ্লোগান দেয়। বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার অফিসের সামনেও অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করে।

এ সময় নিরাপত্তাবাহিনীর সদস্য ও জনপ্রতিনিধিরা কয়েক দফা শিক্ষার্থীদের সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়। পরে উপজেলা চেয়ারম্যান ম্রাগ্য মারমাসহ জনপ্রতিনিধিরা এসে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়ে এক সাপ্তাহের সময় চাইলে শিক্ষার্থীরা দুই দিনের মধ্যে দাবি মানার আল্টিমেটাম দিয়ে অবরোধ প্রত্যাহার করে নেয়। পরে তারা উপজেলা চেয়ারম্যানের মাধ্যমে জেলা প্রশাসককে স্মারকলিপি দেয়।

স্মারকলিপি অভিযোগ করা হয়, গত তিন মাস আহসান উদ্দীন মুরাদ মানিকছড়িতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে যোগদানের পর থেকে নানা অজুহাতে মানিকছড়ি রানী নীহার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তোফাজ্জল হোসেন ও যোগ্যছোলা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এমকে আজাদসহ একাধিক শিক্ষক, সরকারি কর্মকর্তা ও এমন কি জনপ্রতিনিধিদের নানাভাবে অপদস্থ ও হেনস্থা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *