মানিকছড়িতে ‘শাহানশাহ্ হক ভাণ্ডারী সুন্নিয়া মাদ্রাসা’র বার্ষিক ক্রীড়া ও পুরস্কার বিতরণ


মানিকছড়ি প্রতিনিধি:

মানিকছড়ির‘শাহানশাহ্ হক ভাণ্ডারী সুন্নিয়া মাদ্রাসার বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ এবং আজিমুশশান মিলাদুন্নবী মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উপজেলার প্রত্যন্ত জনপদ গোরখানায় প্রতিষ্ঠিত শাহানশাহ্ হক ভাণ্ডারী সুন্নিয়া মাদ্রাসার দ্বি-বার্ষিক ক্রীড়া পুরস্কার বিতরণ ও আজিমুশশান মিলাদুন্নবী মাহফিল উপলক্ষে শুক্রবার দিনব্যাপী অনুষ্ঠানমালার প্রথমার্ধে বেলা সাড়ে ১২টায় অনুষ্ঠিত বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী।

মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও মানিকছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান মো. শফিকুর রহমান ফারুক এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত পুরস্কার বিতরণ সভায় উদ্বোধক ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও যোগ্যাছোলা ইউপি চেয়ারম্যান মো. জয়নাল আবেদীন। অতিথি ছিলেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ও যুবলীগ সভাপতি মো. তাজুল ইসলাম বাবুল, বাটনাতলী ইউপি চেয়ারম্যান মো. শহিদুল ইসলাম মোহন, যুবলীগ সহ-সভাপতি মো. সামায়ূন ফরাজী সামু, যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক মো. জাহেদুল আলম মাসুদ, যুবলীগ নেতা মো. জাহাঙ্গীর আলম, মো. আকতার হোসেন ভূইঁয়া, ডা. মো. রমজান আলী, কলেজিয়েট উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মংশেপ্রু মারমা, কাঠ ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি নিপ্রু মারমা, এস.আই গৌতম চন্দ্র দে প্রমুখ।

পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত প্রধান অতিথি কংজরী চৌধুরী মাদ্রাসায় উপস্থিত হলে অতিথিকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন মাদ্রাসার পরিচালনা কমিটি। পরে অতিথি সেখানে মসজিদের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। পরে প্রধান অতিথি উপস্থিত থেকে মাদ্রাসার বার্ষিক ক্রীড়া অনুষ্ঠানের বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার তুলে দেন। এ সময় তিনি বলেন, উপজেলার অজপাড়া গায়ে একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠায় এখানকার ছেলে-মেয়েরা শিক্ষার আলো থেকে বঞ্চিত হবে না। এখানকার শিক্ষার্থীরা সমাজ আলোকিত করবে। ধর্মীয় জ্ঞানের পাশাপাশি আধুনিক শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে তারা জঙ্গীবাদ মুক্ত দেশ গঠনে ভূমিকা রাখবে।

প্রধান অতিথি প্রতিষ্ঠানের উন্নতি কামনা করে আরো বলেন, অবহেলিত এ জনপদ এবং প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নে জেলা পরিষদ পাশে থাকবে।

এদিকে বিকাল থেকে মাদ্রাসা মাঠে জমে উঠেছে আজিমুশশান মিলাদুন্নবী মাহফিল। এতে প্রধান আলোচক ছিলেন, আন্তর্জাতিক মুফাসসিরে কুরআন, আল্লামা শফিকুল ইসলাম সাঈদি আল-কাদরী। উদ্বোধক ছিলেন, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান এমএ. রাজ্জাক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *