মানিকছড়িতে মাদ্রাসার প্রশ্নে পিএসসি পরীক্ষা, ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা


মানিকছড়ি প্রতিনিধি:
রোববার ১৯ নভেম্বর দেশব্যাপী পিএসসি ও ইবতেদায়ীর সমাপনী পরীক্ষার প্রথম দিনে অনুষ্টিত ইংরেজি পরীক্ষায় মানিকছড়ি কেন্দ্রের একটি কক্ষের ৩০ জন পিএসসি শিক্ষার্থীকে পরীক্ষা দিতে হয়েছে ইবতেদায়ীর প্রশ্নে। ফলে প্রশ্ন কমন না হওয়ায় শিক্ষার্থীদের ভাগ্য নিয়ে দুঃচিন্তায় পড়েছেন অভিভাবকরা।

ক্ষতিগ্রস্ত শিক্ষার্থী, অভিভাবক, সংশ্লিষ্ট স্কুলের শিক্ষক সূত্রে জানা গেছে, মানিকছড়ি উপজেলার ৬টি কেন্দ্রে পিএসসি পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১৮৭৭ জন। এর মধ্যে ছাত্র ৮৪৭ জন, ছাত্রী ১০৩০ জন।

অন্যদিকে ইবতেদায়ী কেন্দ্র ৩টি। পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৬৮ জন। এর মধ্যে ছাত্র ৩৮ জন, ছাত্রী ৩০ জন।

উপজেলা সদরস্থ ‘রাণী নিহার দেবী সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়’ পিএসসি কেন্দ্রের ১১২ নং কক্ষের ৩০ জন শিক্ষার্থী যথাক্রমে রাজবাড়ী মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ১২ জন, দক্ষিণ হাফছড়ি পাড়া শিশু শিক্ষা কেন্দ্রের ১০ জন ও মুসলিমপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৮ জন শিক্ষার্থীর মাঝে ইবতেদায়ীর ইংরেজি প্রশ্ন বিতরণ করেন পর্যবেক্ষকরা। এতে শিক্ষার্থীরা বিষয়টি বুঝতে না পারলেও প্রশ্ন কমন না হওয়ার বিষয়ে একধিকবার কর্তব্যরত শিক্ষকদের কাছে বললেও শিক্ষকরা বিষয়টি আমলে নেননি। ফলে ইবতেদায়ী প্রশ্নেই পরীক্ষা দিতে হয়েছে ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের। পরীক্ষা শেষে ওই কক্ষের ছেলে-মেয়েরা অভিভাকদের কাছে এসে কান্নাকাটি শুরু করলে বিষয়টি জানা জানি হয়।

খবর পেয়ে উপজেলা শিক্ষা অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) শুভাশীষ বড়ুয়া পরিদর্শনে আসেন এবং ঘটনা ধামাচাপা দিতে চেষ্টা করেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এক পর্যায়ে তিনি শিক্ষার্থীদের পাস করিয়ে দেবেন বলে নিশ্চয়তা দেন।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে হল সুপার মো. আকবর আলী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ভুলবশত এমন ঘটনা ঘটেছে। এছাড়া কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত সরকারি অফিসার যিনি প্রশ্ন গ্রহণ করেছেন তিনি উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. মাহমুদুল হকের অসচেতনতার কারণেই এমনটি ঘটেছে।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার শুভাশীষ বড়ুয়া’র কাছে জানতে চাইলে তার ব্যাক্তিগত মুঠোফোনে সংযোগ পাওয়া যায় নি।

মানিকছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার (অতি.) জাহিদ ইকবাল বলেন, লক্ষ্মীছড়ির ৪টি কেন্দ্রে পরীক্ষা থাকায় যথা সময়ে মানিকছড়ি যাওয়া সম্ভব হয়নি। তাছাড়া এ বিষয়ে রবিবার রাত পৌনে ১০টা পর্যন্ত কেউ জানায়নি। দ্রুত এ বিষয়ে খোঁজ নিয়ে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *