মানিকছড়িতে গৃহবধু রহস্যজনক ভাবে খুন: স্বামী রক্তাক্ত


মানিকছড়ি প্রতিনিধি:

মানিকছড়িতে এক গৃহবধু রহস্যজনক ভাবে খুন হয়েছে। স্বামী রক্তাক্তাবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি। স্বামী-স্ত্রীর এমন রহস্যজনক ঘটনার তথ্য উদঘাটনে কাজ শুরু করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার নামার তিনটহরী গ্রামের মো. মমতাজ উদ্দীনের ৫ ছেলে ও ১ মেয়ের সংসারে মেজ ছেলে মো. বেলাল হোসেন(২৬) পিতার বসতবাড়ীর অদূরে পাহাড়ের চুড়ায় স্ত্রীকে নিয়ে বসবাস করত এবং মোটর সাইকেল চালিয়ে সংসার চালাত। তবে সম্প্রতি কালে বেলাল হোসেন ইয়াবা সেবন ও পাচারের কাজে জড়িয়ে পড়ে। এ নিয়ে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে মনমালিন্য ছিল। এ নিয়ে একাধিক বিচার সালিশও হয়েছে।

৩১ জুলাই দিবাগত রাত আনুমানিক ২.৩০টার দিকে তাদের বাড়িতে চিৎকার শুনতে পেয়ে বেলালের পিতা মমতাজ ও ছোট ভাই সাগর হোসেন সেখানে গিয়ে দেখেন বেলাল হোসেন এবং তার স্ত্রী সালমা আক্তার(২২) রক্তাক্তাবস্থায় উঠানে পড়ে ছটফট করছে। পরে তারা আহত দু’জনকে উদ্ধার করে মানিকছড়ি হাসপাতালে ভর্তি করে। কিছুক্ষণ পরেই স্ত্রী সালমা আক্তার(২২) মৃত্যুবরণ করেন। পরে আহত বেলাল হোসেনকে চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

ডা. মহিউদ্দীন জানান, নিহতের গলায় ও পেটে ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। প্রচুর রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয়েছে। অপরদিকে বেলাল হোসেন অনেকটা আশঙ্কামুক্ত। তবে তার উন্নত চিকিৎসার জন্য চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

থানার অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ রশীদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনার খবর পেয়ে রাতেই আমি পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়েছি। ঘটনার প্রকৃত রহস্য খুঁজে বের করতে পুলিশ কাজ শুরু করেছে। এদিকে নিহত সালমা আক্তারের লাশ ময়না তদন্তের জন্য জেলা হাসপাতালে প্রেরণ এবং ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *