মাতৃভাষার বই পেয়ে আনন্দে আত্মহারা পাহাড়ি শিশুরা


নিজস্ব প্রতিবেদক, রাঙামাটি:

সারাদেশের ন্যায় পার্বত্য জেলা রাঙামাটির স্কুলগুলোতে বই উৎসব পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে মঙ্গলবার (১জানুয়ারী) সকাল থেকে স্কুলগুলোতে শিক্ষার্থীদের মাঝে বই প্রদান করা হচ্ছে।

সকালে জেলা শহরের কাঠালতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে নতুন বই প্রদান করা হয়।

এসময় বই বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন- রাঙামাটি জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশীদ।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা খোরশেদ আলমের সভাপতিত্বে এসময় জেলা সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা রবিউল হোসেন, জেলা আ’লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জসীম উদ্দীন বাবুল, স্কুলের প্রধান শিক্ষক বদিউল আলমসহ স্কুলের অন্যান্য শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

দেশের অন্যান্য জেলার চেয়ে এ অঞ্চলের পার্থক্য হলো, এ অঞ্চলে পাহাড়ি শিশুরা তাদের স্ব-স্ব মাতৃভাষার বই পেয়ে থাকে। বর্তমান সরকার পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর শিক্ষার্থীদের এগিয়ে নিতে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীদের স্ব-স্ব জাতির ভাষায় বই বই প্রদান করছে বিগত কয়েক বছর ধরে।

কাঠালতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণীর ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর ছাত্র জেনিথ চাকমা আনন্দ প্রকাশ করে বলেন, আমি আমার মাতৃভাষার নতুন বই পেয়ে দারুন খুশি।

একই স্কুলের প্রথম শ্রেণীর ছাত্রী জয়শ্রী রাখাইন বলেন, আমার মাতৃভাষার বই পেয়ে মজা লাগছে।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা খোরশেদ আলম জানান, রাঙামাটিতে শিক্ষার্থীদের জন্য ৩লাখ ৯০হাজার বইয়ের চাহিদা রয়েছে। সবগুলো বই কয়েকদিনের মধ্যে চলে আসবে। নির্বাচনের কারণে বইগুলো যথা সময়ে আনা যায়নি।

তিনি আরও জানান, আজ পুরো জেলা জুড়ে চাকমা ভাষার বই প্রদান করা হচ্ছে। কয়েকদিনের মধ্যে মারমা এবং ত্রিপুরা ভাষার বই শিক্ষার্থীদের মধ্যে বিতরণ করা হবে বলে শিক্ষা কর্মকর্তা যোগ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *