মাতৃত্বকালীন ছুটিতে থেকেও পানছড়িতে সেরা পরিদর্শিকা নির্বাচিত


নিজস্ব প্রতিবেদক, পানছড়ি:

বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস উপলক্ষে জেলার পানছড়িতে শ্রেষ্ঠ পরিবার কল্যাণ পরিদর্শিকার পুরস্কার পেয়েছে মাতৃত্বকালীন ছুটিতে থাকা লোগাং ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রের মেন্টি চাকমা। বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস উপলক্ষে র‌্যালি পরবর্তী আলোচনা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান শেষে এ নিয়ে ওঠে আলোচনা-সমালোচনার ঝড়।

জানা যায়, মেন্টি চাকমা ২৫জানুয়ারি’১৮ কর্মস্থলে যোগ দিয়ে ৮মার্চ থেকে ৩ অক্টোবর পর্যন্ত রয়েছেন মাতৃত্বকালীন ছুটিতে। এরি মাঝে প্রতি ইউনিয়নের দুর্গম এলাকায় ৪টি স্যাটেলাইট ক্লিনিক ৪ স্থানে প্রতি মাসে ৪বার বসার কথা থাকলেও মেন্টির কর্মস্থল লোগাং ইউনিয়নে একবারও হয়নি বলে নিশ্চিত করেছে বিশ্বস্ত সূত্র। তাছাড়া লোগাং ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে ১৩টি ডেলিভারি নিয়ে মেন্টির কৃতিত্ব কাগজে-কলমে দেখালেও আসলে তা কৃত্বিত্তের সম্পুর্ন দাবীদার বে-সরকারি এনজিও সংস্থা ইপসা।

জানা যায়, উপজেলার লোগাং ও চেংগী ইউপিতে ২টি স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র রেয়েছে। কিন্তু স্যাটেলাইট ক্লিনিক প্রতিটি ইউনিয়নে মাসে ৪ বার করে সেবা দেয়ার কথা থাকলেও একমাত্র লোগাংয়েই তা হচ্ছেনা। একদিকে স্যাটেলাইট ক্লিনিক হচ্ছেনা অন্য দিকে পরিদর্শিকা মাতৃত্বকালীন ছুটিতে, এ নিয়ে অভিজ্ঞ মহল জানায়, অতিরিক্ত দায়িত্বে যে থাকবে এ পুরস্কার তার প্রাপ্য। কিন্তু তা না করে ছুটিতে থাকা পরিদর্শিকাকে বাড়ি থেকে এনে পুরস্কৃত করাকে স্বজনপ্রীতি বলে মন্তব্য করেছেন অনেকেই। এ ব্যাপারে মেন্টি চাকমার যোগদানের তারিখ জানতে চাইলে পানছড়ি পরিবার-পরিকল্পনা অধিদপ্তরের অফিস সহকারী দিপময় চাকমা দিতে অপারগতা প্রকাশ করে তথ্য অধিকার আইনে দরখাস্ত দাখিল করতে বলেন। পরবর্তীতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ আবুল হাশেমের সুপারিশে তিনি এ প্রতিবেদককে মেন্টির যোগদানের তারিখ প্রদান করেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও প: প: কর্মকর্তা ডা. সনজীব ত্রিপুরা জানান, এ ব্যাপারে আমরা উপজেলা পরিবার-পরিকল্পনা অধিদপ্তরকে সহযোগিতা দিয়েছি মাত্র। মেন্টি চাকমার অনিয়মিত’র ক্ষেত্রে  উপজেলা পরিবার-পরিকল্পনা কর্মকর্তাই ভালো বলতে পারবেন।

অতিরিক্ত দায়িত্বে থাকা পানছড়ি উপজেলা প. প. কর্মকর্তা সোহাগময় চাকমা জানান, আসলে এটা একটা ফরমালিটি। তেমন আহামরি কিছুই নয়। যে কোন একজনকে দিলেই হয। খাগড়াছড়ি জেলা পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক বিপ্লব বড়ুয়া জানান, এটা আসলে ব্যক্তি পাওয়ার কথা না। যদিও বা ব্যক্তিকে দেয়া হয়ে থাকে তাহলে যে অতিরিক্ত দায়িত্বে আছেন তিনিই পাবেন। বিষয়টি তিনি গুরুত্ব সহকারে দেখবেন বলে জানান।

নিউজটি পানছড়ি বিভাগে প্রকাশ করা হয়েছে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *