মাঠে-ময়দানে যিনি জনগনের সেবা করছেন তাকেই মনোনয়ন দেয়া হবে: ড. হাছান মাহমুদ এমপি



রামু প্রতিনিধি:

সাবেক মন্ত্রী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এর প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক, বন ও পরিবেশ মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ড. হাছান মাহমুদ এমপি বলেছেন, নির্বাচন এলেই অনেক নেতা মনোনয়ন পেতে মরিয়া হয়ে উঠে। এরা মৌসুমী নেতা। এদের কোনভাবেই মনোনয়ন দেয়া হবে না। যেসব নেতা মাঠে-ময়দান, আর পাড়া-মহল্লায় মানুষের পাশে থেকে জনগনের সেবা করে গেছেন তাদেরই মনোনয়ন দেয়া হবে।

বৃহষ্পতিবার (৬ সেপ্টেম্বর) সকাল ১১টায় রামু স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত শোক সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন, কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ¦ সাইমুম সরওয়ার কমল। মেজবানস্থলে নির্মিত মঞ্চে বঙ্গবন্ধুর খুনিদের ফাঁসিতে ঝুলানোর প্রতিকী কর্মসূচি পালন করা হয়।

তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যার মাধ্যমে বাংলাদেশের উন্নয়ন-অগ্রগতি বড় ধরনের বাধাগ্রস্ত করা হয়েছিলো। কিন্তু বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন সফলভাবে বাস্তবায়ন করেছেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙ্গালী জাতিকে স্বাধীন দেশ দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা সেই দেশকে বিশ্বের উন্নয়নশীল, সমৃদ্ধ দেশে পরিনত করেছেন। বাংলাদেশকে যেভাবে এগিয়ে নিচ্ছেন তা পুরো বিশ্ববাসীর জন্য উদাহরণ।

রামু উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগ সভাপতি রিয়াজ উল আলম রিয়াজ উল আলমের সঞ্চালনায় বিশাল শোক সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, সহ সভাপতি জাফর আলম চৌধুরী, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মুসরাত জাহান মুন্নী, রামু উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আলী হোসেন, রামু থানার ওসি মুহাম্মদ আবুল মনুসর, ওসি (তদন্ত) মিজানুর রহমান, কক্সবাজার জেলা পরিষদ সদস্য শামসুল আলম চেয়ারম্যান ও নুরুল হক কোম্পানী, বিশিষ্ট আওয়ামী লীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা ফরিদ আহমদ মাস্টার, চাকমারকুল ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম সিকদার, ফতেখাঁরকুল ইউপি চেয়ারম্যান ফরিদুল আলম, খুনিয়াপালং ইউপি চেয়ারম্যান সাংবাদিক আবদুল মাবুদ, গর্জনিয়া ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলাম, দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান ইউনুচ ভূট্টো, কচ্ছপিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আবু ইসমাইল মো. নোমান, কাউয়ারখোপ ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমদ, রাজারকুল ইউপি চেয়ারম্যান মুফিজুর রহমান, খুনিয়াপালং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি আবদুল গনি চেয়ারম্যান, আওয়ামী লীগ নেতা মীর কাসেম হেলালী, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম ভূট্টো, কক্সবাজার জেলা সৈনিকলীগ সভাপতি তৈয়ব উল্লাহ মাতব্বর, উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক নীতিশ বড়ুয়া, সহ সভাপতি ওসমান সরওয়ার মামুন, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি এডভোকেট মোজাফ্ফর আহমদ হেলালী, সাধারণ সম্পাদক তপন মল্লিক, যুবলীগ নেতা পলক বড়ুয়া আপ্পু, জেলা মৎস্যজীবিলীগ নেতা আনছারুল হক ভূট্টো, আওয়ামী লীগ নেতা হাজ্বী নুরুল হক, সৈয়দ মো. আবদু শুক্কুর, সাংসদ কমলের একান্ত সচিব ও জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা মিজানুর রহমান, উপজেলা যুবলীগে স্বেচ্ছাসেবকলীগের সহ সম্পাদক আবু বক্কর ছিদ্দিক, উপজেলা তাঁতীলীগ সভাপতি নুরুল আলম জিকু, সাধারণ সম্পাদক মোস্তাক আহমদ, সৈনিকলীগ সভাপতি মিজানুল হক রাজা, সাধারণ সম্পাদক রাশেদুল হক বাবু, ফতেখাঁরকুল ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি আজিজুল হক আজিজ, উপজেলা শ্রমিকলীগ সাধারণ সম্পাদক সাহাব উদ্দিন, ছাত্রলীগ নেতা মোহাম্মদ নোমান, বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদের সভাপতি একরামুল হাসান ইয়াছিন প্রমূখ।

এতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর আত্মার মাগফেরাত এবং জননেত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু কামনা করে মোনাজাত পরিচালনা করেন, রামু জামেয়াতুল উলুম মাদরাসার পরিচালক মাওলানা হাফেজ শামসুল হক।

উল্লেখ্য, বৃহষ্পতিবার বেলা ১২টা থেকে বিকাল পর্যন্ত এ মেজবানে কক্সবাজার সদর ও রামু উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের হাজার হাজার নেতাকর্মী, সরকারি দপ্তর, কলেজ, মাধ্যমিক স্কুল ও মাদরাসাসহ বিভিন্ন শিক্ষা, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারি, ছাত্রছাত্রী, শিক্ষকসহ সর্বস্তরের জনতা অংশ নেন।

রামু জাতীয় শোক দিবস ও মেজবান বাস্তবায়ন কমিটির মহাসচিব উপজেলা চেয়ারম্যান রিয়াজ উল আলম জানিয়েছেন, সাংসদ কমলের উদ্যোগে আয়োজিত এ মেজবান দেশের স্মরণকালের বৃহৎ মেজবান। মেজবান ও শোক সমাবেশে নেতৃবৃন্দ সহ হাজার হাজার মানুষ সমবেত হয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন। তিনি সুশৃংখলভাবে মেজবান সম্পন্ন হওয়ায় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ, শ্রমিকলীগ, সৈনিকলীগ, তাঁতীলীগ, বঙ্গবন্ধু ছাত্রপরিষদসহ বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *