মাটিরাঙ্গায় নতুন বইয়ের উৎসব


01-12-2017_matiranga-boi-utsab-news-pic

নিজস্ব প্রতিবেদক :

উৎসবমূখর পরিবেশের মধ্য দিয়ে পার্বত্য খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গায় প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও মাদরাসা সমূহে ‘বই উৎসব’ পালিত হয়েছে। নতুন বছরের প্রথম দিনে নতুন বইয়ের গন্ধ শুকে, নতুন শ্রেণিতে একটি নতুন শিক্ষা বছর শুরু করেছে এখানকার শিক্ষার্থীরা। নতুন বই হাতে ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের উল্লাস প্রকাশ করতে দেখা গেছে।

রোববার সকালের দিকে মাটিরাঙ্গা বনশ্রী বিদ্যা নিকেতনে ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বছরের নতুন বই তুলে দিয়ে মাটিরাঙ্গায় বই উৎসবের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিএম মশিউর রহমান। এসময় মাটিরাঙ্গা উপজেলা কৃষি অফিসার মো. শাহ আলম মিয়া, মাটিরাঙ্গা উপজেলা ভারপ্রাপ্ত প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার কৃষ্ণলাল দেবনাথ ও মাটিরাঙ্গা সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান হিরনজয় ত্রিপুরা প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

এর পরপরই মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিএম মশিউর রহমান মাটিরাঙ্গা মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বই উৎসব উদযাপন করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন, মাটিরাঙ্গা পৌরসভার মেয়র মো. শামছুল হক, মাটিরাঙ্গা উপজেলা ভারপ্রাপ্ত প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার কৃষ্ণলাল দেবনাথ, মাটিরাঙ্গা সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান হিরনজয় ত্রিপুরা ও মাটিরাঙ্গা মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ আবদুল মালেক প্রমূখ।

মাটিরাঙ্গা মিউনিসিপ্যাল মডেল হাই স্কুলে বই বিতরণকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিএম মশিউর রহমান নতুন বইয়ের গন্ধ কখনো ফুড়িয়ে যাবেনা উল্লেখ করে বলেন, নতুন বইয়ের গন্ধে জীবনকে আলোকিত করতে হবে। তিনি কবি নজরুল ইসলামের কবিতার শেষ লাইন ‘বিশ্ব জগত দেখবো আমি আপন হাতের মুঠোয়’ উদ্বৃত করে বলেন, তথ্য-প্রযুক্তির এ যুগে যেনতেন লেখাপড়া নয় বরং প্রকৃত শিক্ষা গ্রহণ করতে হবে। প্রকৃত শিক্ষা গ্রহণের মাধ্যমে নিজের শ্রেষ্ঠত্ব প্রমান করতে হবে।

কখনো পুরোনো বই কিনে লেখাপড়া কতে হয়েছে এমন কথা উল্লেখ করে মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিএম মশিউর রহমান বলেন, এখন সে চিত্র পাল্টে গেছে। এখন সারাদেশে শিক্ষার্থীরা বিনামূল্যে নতুন বই পাচ্ছে। সকলের শিক্ষা গ্রহণ নিশ্চিত করতেই সরকারের এ উদ্যোগ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন মাটিরাঙ্গা পৌরসভার প্যানেল মেয়র ও বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য মো. আলাউদ্দিন লিটন ও বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. নুরুল ইসলাম প্রমূখ।

এদিকে একই সময়ে মাটিরাঙ্গা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, মাটিরাঙ্গা ইসলামিয়া আলিম মাদরাসা ও মাটিরাঙ্গা মডেল উচ্চ বিদ্যালয়সহ উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্বারম্বরে ‘বই উৎসব’ পালিত হয়।

image_pdfimage_print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *