মহেশখালীতে বন্দুক যুদ্ধে অস্ত্র ও গুলিসহ আটক ৫


মহেশখালী প্রতিনিধি:

কক্সবাজারের মহেশখালী উপজেলার হোয়ানক ইউনিয়নে পুলিশ ও সন্ত্রাসীদের মধ্যে বন্দুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটেছে। ঘন্টাব্যাপী বন্দুক যুদ্ধে পুলিশ ঘটনা স্থল থেকে ৫টি দেশীয় তৈরি এলজি বন্দুক ও ৭ রাউন্ড গুলিসহ ৫ সন্ত্রাসীকে আটক করেছে।

বৃহস্পতিবার(০৩ মে) রাতে উপজেলার হোয়ানক ইউনিয়নের কেরুনতলী নয়া পাড়াস্থ পাহাড়ি এলাকায় এই বন্দুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটে। ঘন্টাব্যাপী বন্দুক যুদ্ধের ঘটনায় সন্ত্রাসীরা ১ শত রাউন্ড গুলি ও পুলিশ ২ রাউন্ড পিস্তলের গুলিসহ ৪১ রাউন্ড গুলি বর্ষণ করে বলে থানা সূত্রে জানা যায়।

আটককৃত হলেন- নয়াপাড়ার মেহের আলীর পুত্র সলিম উল্লাহ, মো মনির (২০), পিতা-হাছন আলী, আক্কেল আলী(৫২) পিতা-মৃত দুদু মিয়া, হাবিব উল্লাহ(২৩)পিতা-শের আলী ও মো. রফিক(২৩), পিতা-আবু ছৈয়দ।

থানা সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার(০৩ মে) রাতে উপজেলার হোয়ানক ইউনিয়নের কেরুনতলী নয়া পাড়াস্থ পাহাড়ি এলাকায় একদল শসস্ত্র সন্ত্রাসী সড়ক ডাকাতির প্রস্তুতি নেয়ার গোপন সংবাদ পেয়ে মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ প্রদীপ কুমার দাশ(পিপিএম)’র নেতৃত্বে একদল পুলিশ ওই এলাকার চতুর্দিকে ঘিরে ফেললে সন্ত্রাসীরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলি বর্ষণ করলে পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি চালায়।

এসময় সন্ত্রাসী গ্রুপের অন্যান্য সদস্যরা পিছু হটে পালিয়ে গেলে পুলিশ ঘটনাস্থলে অভিযান চালিয়ে ৫টি দেশীয় তৈরি এলজি বন্দুক ও ৭ রাউন্ড গুলিসহ ৫জনকে আটক করে। প্রায় ঘন্টাব্যাপী বন্দুক যুদ্ধের ঘটনায় সন্ত্রাসীরা ১ শত রাউন্ড গুলি ও পুলিশ ২ রাউন্ড পিস্তলের গুলিসহ ৪১ রাউন্ড গুলি বর্ষণ করে বলে পুলিশ জানিয়েছেন।
এব্যাপারে পুলিশ বাদি হয়ে মহেশখালী থানায় সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে থানা সূত্রে জানা যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *