মহেশখালীতে প্রতিপক্ষের গুলিতে যুবক খুন


মহেশখালী প্রতিনিধি:

মহেশখালী উপজেলার হোয়ানক কালাগাজির পাড়ায় গুলিতে আবু কায়সার (২১) নামে এক যুবক নিহত হয়েছে। সে ওই এলাকার সাবেক মেম্বার জোনাব আলীর পুত্র।

শনিবার (৯ ডিসেম্বর) ভোরে প্রতিপক্ষ জালাল বাহিনীর সন্ত্রাসীদের গুলিতে গুলিবিদ্ধ হয়ে আবু কায়সার মারা যান বলে দাবি করেছেন তার পরিবার।

নিহতের পিতা জোনাব আলী অভিযোগ করেন, তারা ভোরে প্রতিদিনের মতো ঘুমন্ত অবস্থায় ছিলেন। এসময় অতর্কিত অবস্থায় জালাল বাহিনীর সন্ত্রাসী ছৈয়দ মিয়া, রমিজ, খোরশেদ, বক্কর, আবছার, আমিনসহ ৩০/৪০ জনের একদল সন্ত্রাসী জোনাব আলীর বাড়িতে হামলায় চালায়।

এসময় সন্ত্রাসীরা আবু কায়সারকে লক্ষ্য করে রাইফেল দিয়ে গুলি করে। এতে সে গুরুতর আহত হয়। আহত অবস্থায় তাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকাল ১১টার দিকে মারা যায় আবু কায়সার।

সত্যতা নিশ্চিত করে মহেশখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ বলেন, কি কারণে এবং কারা মেরেছে তা এখনো জানতে পারিনি। তবে স্থানীয়দের মতে দুই গ্রুপের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে জমিজমার বিষয় নিয়ে বিরোধ চলে আসছিলো। তার জের ধরে মাঝে মাঝে উভয় পক্ষের মাঝে সংঘর্ষ হতো।

জালাল বাহিনীর লোকজন পাহাড়ি জমি দখল করতে নিরহ মানুষের উপর হামলা করত প্রায় সময়। নিহত কায়সার ছোট বয়স থেকে চট্টগ্রামে শহরে বেড়ে উঠে সেই মারামারির মধ্যে কোন দিন ছিলোনা। তার পিতার অসুস্থ্যতার কারণে গ্রামে দেখতে এসে প্রতিপক্ষের হাতে নিহত হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে রয়েছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে গুরুত্বপুর্ণ পয়েন্টে টহল দিচ্ছে বলে জানা গেছে।

ইতিপূর্বে জালাল বাহিনীর হাতে জোনাব আলী বাহিনীর ৫জন নিহত হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *