মনির হত্যার ৩ বছরেও প্রশাসনের দেওয়া প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন হয়নি


রাঙামাটি প্রতিনিধি:

২০১৫সালে ১০ জানুয়ারি রাঙ্গামাটি সরকারি মেডিকেল কলেজ উদ্বোধনের সময় সমবেত ছাত্র ও যুব সমাজের সাথে মিছিলে সামিল হন রাঙ্গামাটি নানিয়ারচর উপজেলার বুড়িঘাট এলাকার আব্দুল বারেক এর ছেলে মনির হোসেন। ওই দিন রাঙ্গামাটি মেডিকেল কলেজ প্রতিষ্ঠায় বিরোধীতাকারী সন্ত্রাসীদের আঘাতে আঘাত প্রাপ্ত হয়ে চিকিৎসার অভাবে মৃত্যুবরণ করেন মনির। তার কোন বিচার হয়নি। তার বাবাকেও ২০০৩ সালে ১৩ অক্টোবর পাহাড়ি সন্ত্রাসীরা নির্মমভাবে হত্যা করে।

বুধবার(১০জানুয়ারি) সকালে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে মনির স্মৃতি সংসদ এর উদ্যোগে আয়োজিত মানববন্ধনে বক্তারা এসব অভিযোগ করেন। এসময় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ও মেডিকেল কলেজ বাস্তবায়ন সংগ্রাম পরিষদের আহ্বায়ক মো. জাহাঙ্গীর আলম মুন্না, যুগ্ম আহ্বায়ক জাহাঙ্গীর কামাল, সহ-সভাপতি কাজী মো. জালোয়া, বাঙ্গালী নেতা এড. মো. আবছার আলী, বীরশ্রেষ্ঠ মুন্সি আব্দুর রউফ স্মৃতি সংসদের সভাপতি এড. মামুন ভূঁইয়া, মনির স্মৃতি সংসদের আহ্বায়ক মো. মিজানুর রহমান, সভাপতি সেলিম রেজা, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কুদ্দুস প্রমুখ।

মনির মা কমলা বেগম বলেন, হত্যাকারীদের বিরুদ্ধে কোতয়ালী থানায় মামলা হলেও তার কোন তদন্ত হয়নি। সরকার এর কাছে আমার স্বামী-ছেলের হত্যাকারীদের বিচারের জন্য জোর দাবি  জানাচ্ছি। তিনি আরো বলেন, আমার আরেক ছেলে আল আমিন। তাকে জেলা প্রশাসনের কার্যালয়ে চাকুরি দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেও এখনো এর কোনটাই বাস্তবায়ন হয়নি।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, আমাদের দাবি রাঙ্গামাটি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবং মেডিকেল কলেজে একটি করে মোট দুটি হলরুম মনির হোসেন নামে নাম করণ করা,  হত্যাকারীদের দ্রুত বিচার, মনিরের পরিবারকে আর্থিক সাহায্য, মনিরের ভাইয়ের চাকরি প্রদানসহ মনির পরিবারকে তার মরণত্তোর সনদ প্রদানের জন্য দাবি জানানো হয়েছে মানববন্ধন থেকে।

মানববন্ধন শেষে জেলা প্রশাসক বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে।

image_pdfimage_print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *