মংডুতে বিভিন্ন দেশের দেওয়া ত্রাণ বিতরণ করছে রাখাইন রাজ্য সরকার


পার্বত্যনিউজ ডেস্ক:

সহিংসতা কবলিত মিয়ানমারের মংডু জেলার বুথিয়াডাউং এলাকায়  ত্রাণ বিতরণ করেছে রাখাইন রাজ্য সরকার। স্থানীয় আদি বাসিন্দা ও মুসলিম অধ্যুষিত গ্রামে রবিবার সকালে এসব ত্রাণ বিতরণ করা হয়। বিভিন্ন দেশের পক্ষ থেকে এসব ত্রাণ সামগ্রী সরবরাহ করা হয়েছে। সোমবার  সরকার পরিচালিত সংবাদমাধ্যম দ্য গ্লোবাল নিউ লাইট অব মিয়ানমার এ খবর জানিয়েছে।

খবরে বলা হয়েছে, স্থানীয় আদিবাসীদের ইয়াওয়ামা ও ডনথেইন গ্রাম এবং মুসলিমদের থিতিয়াইন ও থাইয়াজার গ্রামে ২৩০টি বাড়িতে বসবাসরত দেড় হাজার মানুষের মধ্যে এসব ত্রাণ বিতরণ করা হয়। এর মধ্যে রয়েছে ১০০ ব্যাগ চাল, ২০০ লিটার রান্নার তেলের বোতল, ২০০ কেজি পেঁয়াজ ও ৫০ কেজি লবন। এছাড়া ৯০ বছরের বেশি বয়স্ক মানুষদের নগত অর্থ সহযোগিতা দেওয়া হয়।

রাখাইন রাজ্যের সমাজকল্যাণ, ত্রাণ ও পুনর্বাসন বিভাগের পরিচালক ইউ কিয়াই মিন জানান, বিভিন্ন দেশের পাঠানো ত্রাণ রাজ্য সরকারের সহযোগিতায় আরসার সন্ত্রাসীদের হামলায় আক্রান্ত কয়েকটি গ্রামে বিতরণ করা হয়েছে। স্থানীয় জাতিগোষ্ঠী ও মুসলমানরা শান্তিপূর্ণভাবে এসব ত্রাণ গ্রহণ করেছেন। মুসলিম গ্রামগুলোতে খাবার সরবরাহ করা হবে।

খবরে আরও বলা হয়েছে, রাজ্য সরকার সেনাবাহিনীর সহযোগিতা হেলিকপ্টার ও নৌকায় আরসার হামলায় বাস্তুচ্যুত মানুষদের মধ্যে ত্রাণ পৌঁছে দিচ্ছে। এই ত্রাণ বিতরণ অব্যাহত থাকবে।

২৫ আগস্ট রাখাইন অঞ্চলে সহিংসতা শুরু হওয়ার পর ১৬ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রায় ৪ লাখ ৯ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশে প্রবেশ করেছেন। জাতিসংঘসহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে রোহিঙ্গাদের জাতিগত নিধনের অভিযোগ এনেছে। সহিংসতা কবলিত রাখাইনের উত্তরাঞ্চলে সাংবাদিক ও আন্তর্জাতিক ত্রাণকর্মীদের প্রবেশ করতে দিচ্ছে না মিয়ানমার।

সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *