ভূমি কমিশন আইনে কোন সম্প্রদায়ের মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কা নেই: কমিশন চেয়ারম্যান আনোয়ার উল হক


DSC01164 copy

নিজস্ব প্রতিবেদক:

পার্বত্য চট্টগ্রাম ভূমি কমিশনের চেয়ারম্যান বিচারপতি আনোয়ারউল হক বলেছেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের সকল সম্প্রদায়ের অভিযোগ বিবেচনায় এনে বিরাজমান ভূমির বিরোধ নিরসন করা হবে। তিনি বলেন এ ভূমি কমিশন আইনে কোন সম্প্রদায়ের মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কা নেই।

রবিবার রাঙামাটি সার্কিট হাউজে পার্বত্য চট্টগ্রাম ভূমি কমিশনের বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন কমিশন চেয়ারম্যান। পার্বত্য ভূমি কমিশনের চেয়ারম্যান সুপ্রীম কোর্টের বিচারপতি মোহাম্মদ আনোয়ারউল হক, পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ চেয়ারম্যান জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় সন্তু লারমাসহ কমিশনের ৯ সদস্য বৈঠকে যোগ দেন। এ সময় কমিশন সদস্য পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ চেয়ারম্যান বলেন, সরকার পার্বত্য চট্টগ্রামের ভূমি সমস্যা সমাধানে এগিয়ে এসেছেন। এতে সহযোগিতা করা সকলের দায়িত্ব। এ কমিশনের মাধ্যমে পার্বত্য চট্টগ্রামের দীর্ঘ দিনের ভূমি সমস্যার সমাধান আসবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন ।

কমিশনের বৈঠক শুরুর আগে প্রধানমন্ত্রীর আর্ন্তজাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভি পার্বত্য ভূমি কমিশনের সদস্যদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। বৈঠকে পার্বত্য ভূমি কমিশনের সংশোধিত আইনের আলোকে কমিশন কিভাবে পুনরায় কাজ শুরু করতে পারে সে বিষয়ে আলোচনা হয় বলে বৈঠক সূত্রে জানা গেছে।

এর আগে সকাল সাড়ে ১০টায় সার্কিট হাউজ মিলনায়তনে ভূমি কমিশনের চেয়ারম্যান বিচারপতি আনোয়ারউল হকের সভাপতিত্বে বৈঠক শুরু হয়। এতে কমিশনের ৯ জন সদস্য যোগ দেন। বৈঠকে কমিশনের ভবিষ্যৎ কর্ম পরিকল্পনা, জনবল নিয়োগ ও বাজেট বরাদ্দ নিয়ে আলোচনা হয়।

এদিকে এ বৈঠকের প্রতিবাদে এবং ভূমি কমিশনের সংশোধীত আইন বাতিলের দাবীতে রাঙামাটিসহ তিন পার্বত্য জেলায় হরতাল পালন করে পাঁচ বাঙ্গালী সংগঠন। হরতালে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ থাকায় অচল হয়ে পড়ে রাঙামাটি জেলা। তবে কোথাও কোন অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।

image_pdfimage_print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *