বৈসাবি উৎসব উপলক্ষে খাগড়াছড়িতে গ্রামীণ খেলাধুলার উদ্বোধন


নিজস্ব প্রতিবেদক, খাগড়াছড়ি:

পাহাড়ি জনগোষ্ঠীর প্রধান সামাজিক  উৎসব বৈ-সা-বি উপলক্ষে খাগড়াছড়িতে ১২ দিনব্যাপী গ্রামীণ খেলাধুলা শুরু হয়েছে।

সোমবার সন্ধ্যায় খাগড়াছড়ি সদরের মহাজনপাড়া সূর্যশিখা ক্লাবের আয়োজনে গ্রামীণ খেলাধুলার উদ্বোধন করেন খাগড়াছড়ি জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ও পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য জুয়েল চাকমা।

খাগড়াছড়ি শহরের প্রবীণ ব্যক্তিত্ব রবি শংকর তালুকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উৎসব উদ্বোধনী সভায় উপস্থিত ছিলেন অমল কান্তি চাকমা, চন্দ্রোদয় চাকমা, স্মৃতি রতন চাকমা, সমাজকর্মী বাবুরাম চাকমা, ক্রীড়া সংগঠক প্রদীপ কুমার ত্রিপুরা, স্মৃতি রতন চাকমা, ক্যহ্লাচাই চৌধুরী, সুদীপ্ত চাকমা ও শান্তিব্রত চাকমা।

প্রতিবারের মতো বৈসাবি(বৈসু, সাংগ্রাই ও বিজু) উৎসবকে সামনে রেখে খাগড়াছড়িসহ তিন পার্বত্য জেলায় চাকমা-মারমা-ত্রিপুরাসহ অন্যসব ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠি ঐতিহ্যবাহী নানা খেলাধুলা-সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এর ধারাবাহিকতায় সূর্যশিখা ক্লাব আগামী ১২ এপ্রিল পর্যন্ত প্রীতি ফুটবল ম্যাচ, ক্রিকেট ম্যাচ, হাড়ি ভাঙ্গা, হা-ডু-ডু, সুন্দর হস্তাক্ষর, কান্টা মারা (গুলতি), বালিশ খেলাসহ ১৪ প্রকারের প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি খাগড়াছড়ি জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ সদস্য জুয়েল চাকমা বলেন, পাহাড়ে বসবাসরত বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর নিজস্ব সংস্কৃতি ধরে রাখতে চর্চার বিকল্প নেই। বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার বিভিন্ন জাতিগোষ্ঠীর কৃষ্টি সংস্কৃতি সংরক্ষণে আন্তরিক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *