বেতন বন্ধ থাকায় ক্লাস বর্জন করল শিক্ষকরা 


img_0958-copy

থানছি প্রতিনিধি:

বান্দরবানে থানচি’র রেমাক্রী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা অনিষ্ঠকালের জন্য  ঘোষনা করে ক্লাস বর্জন করেছে । ফলে প্রায় ৫৬ জন শিক্ষার্থী নিয়মিত পাঠ গ্রহন থেকে ব্যাহত হচ্ছে । এ অবস্থা চলতে থাকলে আসন্ন বার্ষিক পরীক্ষায় অংশ গ্রহনের বিষয়ে অনিশ্চিত হয়ে আবাসিক ছেড়ে হতাশায় বাড়ীতে ফিরে যেতে প্রস্তুতি নিচ্ছি সংশ্লিষ্ট শিক্ষার্থীরা। তাই উপজেলা প্রশাসন ও সংশ্লিষ্টদের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন অভিবাবকরা।

জানা যায়, গত ২১ শে অক্টোবর শুক্রবার ত্রিবার্ষিক সভায় শিক্ষকদের ১১ মাসের বেতন দাবী করা হলে  প্রধান অতিথি উপজেলা চেয়ারম্যান ক্যহ্লাচিং মারমা ও পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মালিরাং ত্রিপুরা  ৩০ শে অক্টোবর মধ্যে এক মাসের বেতন প্রদানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। প্রতিশ্রুতি সময় পার হলে শিক্ষকদের নূন্যতম  খাওয়ার চাউল পর্যন্ত না থাকায়  ক্লাস বর্জনের বাধ্য হচ্ছে বলে জানিয়েছেন।

প্রধান শিক্ষক বেনেডিক্ট ত্রিপুরা  সাংবাদিকদের জানান, শিক্ষকদের নূন্যতম ১ মাসের বেতন প্রদান করা হলে  আসছে ১৮ই নভেম্বর শুক্রবার শিক্ষার্থীদের অভিবাবক, এলাকার গন্যমান্য, হেডম্যান, কারবারী, পরিচালনা পর্ষদের সকল সদস্য, জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে সম্মেলন করে বিদ্যালয়ের নানা সমস্যা সমাধানের বিষয়ে চূড়ান্ত পর্যায়ে যাওয়ার প্রস্তুতি রয়েছে। আর শিক্ষকরা ক্লাস বর্জন করায় ঔ সম্মেলন না হওয়ার সম্ভাবনা বেশী বলে জানিয়েছেন তিনি।

জানতে চাইলে পরিচালনা পর্ষদে সভাপতি মালিরাং ত্রিপুরা বলেন, আমি ইউপি চেয়ারম্যান দায়িত্ব থাকাকালীণ সময়ের  শিক্ষকদের নূন্যতম সমস্যা গুলি সমাধান করেছি । কিন্তু এখন আমার পক্ষে সম্ভব নয়। তবে সংশ্লিষ্ট  জনপ্রতিনিধি দাতাদের যোগাযোগ করে ব্যবস্থা গ্রহনে উদ্যোগ নেব।

যোগাযোগ করা হলে সংশ্লিষ্ট দাতা জনপ্রতিনিধি উপজেলা চেয়ারম্যান ক্যহ্লাচিং মারমা সাংবাদিকদের বলেন, উপজেলা পরিষদের বরাদ্ধ পৌঁছলে বিলম্ব না করে সর্বপ্রথম ওই বিদ্যালয়ে জন্য পদক্ষেপ গ্রহন করব। আর শিক্ষকরা অধৈর্য্য হয়ে ক্লাস বর্জন করা এটি বোধহম্য নয় বলেও জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *