বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন ২০১৬’র বিরুদ্ধে মানববন্ধন


10-48
পেকুয়া প্রতিনিধি:
কোস্ট ট্রাস্ট নামের এক এনজিও সংস্থা এবার বাল্য বিবাহ নিরোধ আইন ২০১৬ বিরোধী মানববন্ধন করেছে পেকুয়ায়। এ এনজিও সংস্থাটি দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে পেকুয়ায় তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করে যাচ্ছে। মাইক্রোক্রেডিটসহ কয়েকটি প্রকল্প তারা বাস্তবায়ন করে।

১০ ডিসেম্বর সকালে লোকদেখানো গুটিকয়েকজন পুরুষ ও মহিলা নিয়ে বাল্য বিবাহ নিরোধ আইন ২০১৬ খসড়া বাল্য বিবাহের ঝুঁকি বাড়াবে অবিলম্বে প্রয়োজনীয় সংশোধন করুন শীর্ষক প্রতিপাদ্য নিয়ে মানববন্ধন করেছে সংস্থাটি।

জানা গেছে, শাস্তি বৃদ্ধির প্রস্তাব করে বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন ২০১৪ এর খসড়া নীতিগতভাবে অনুমোদন করছে মন্ত্রিসভা। এতে বাল্য বিবাহের অপরাধে কারাদন্ড জরিমানা ও উভয় দন্ডই বাড়ানো হয়েছে। বাল্য বিবাহের সঙ্গে জড়িতদের শাস্তি পুরুষের ক্ষেত্রে ২ বছর কারাদন্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানার বিধান রাখা হয়েছে। নারীদের জন্য কারাদন্ড প্রযোজ্য হবে না তবে জরিমানার বিধান অভিন্ন রয়েছে। প্রস্তাবিত আইনে ছেলের বিয়ের বয়স ২১ ও মেয়ের জন্য ১৮ বছর নির্ধারণের প্রস্তাব করা হয়েছে। তবে মন্ত্রীসভা দেশের আর্থ সামাজিক অবস্থা বিবেচনায় বিয়ের বয়সসীমা কমানোর পরামর্শ দিয়েছে এবং পিতা মাতার সুপারিশে নির্ধারিত বয়সের কম হলেও বিয়ের বিধান রাখা হয়েছে।

বাল্য বিবাহ রোধে সরকার সুশীল সমাজ, এনজিও প্রতিনিধি ও সরকারী কর্মকর্তাদের নিয়ে জেলা উপজেলা ইউনিয়ন পর্যায়ে কমিটি করবে বলেও প্রস্তাবিত কমিটিতে উল্লেখ রয়েছে।

এ ব্যাপারে পেকুয়া কোস্ট ট্রাস্ট’র ম্যানেজার জসিম উদ্দিন জানান, কক্সবাজার জেলা সমন্বয়কারী জাহাঙ্গীর ভাইয়ের নির্দেশে আমরা মানববন্ধন করেছি। এ মানববন্ধন সরকার বিরোধী কিনা প্রশ্ন করলে তিনি সরকার বিরোধী বলে স্বীকার করেন।

image_pdfimage_print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *