বালুখালী উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটিতে হত্যা মামলার আসামীকে অন্তর্ভুক্ত করার ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা


Pic Ukhiya- (21.04

উখিয়া প্রতিনিধি:

উখিয়ার বালুখালী কাশেমিয়া উচ্চ বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটিতে ভুলু হত্যা মামলার প্রধান আসামী, ইয়াবার গডফাদার ও ডজন মামলার আসামী জামায়াত ক্যাডার আকবর আহমদকে শিক্ষানুরাগী পদে অন্তর্ভুক্ত করায় বিদ্যালয়ের সচেতন অভিভাবক, সুশিলসমাজ ও রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টিসহ মিশ্র প্রতিক্রিয়া এবং উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। এলাকাবাসী নানা বিতর্কিত ও ইয়াবার সাথে জড়িত আকবর আহমদকে কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত না করার জন্য সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের নিকট জোর দাবি জানিয়েছেন।

জানা যায়, উখিয়া উপজেলার বালুখালী কাশেমিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে পুর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করার জন্য চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। সংশ্লিষ্ট সূত্রে প্রকাশ বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির শিক্ষানুরাগী পদে এক জনসচেতন সম্মানিত ব্যক্তি, শিক্ষিত এবং শিক্ষার জন্য নিবেদিত এমন সর্বজন গ্রহণ যোগ্য ব্যক্তিকে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য সুনির্দিষ্ট নির্দেশনাবলী রয়েছে।

বিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, গত ১৭ এপ্রিল ম্যানেজিং কমিটির এক সভায় নানা আলোচিত ও সমালোচিত এবং হত্যা মামলার আসামী আকবর আহমদকে শিক্ষানুরাগী পদে অন্তর্ভুক্তি করা হয়। বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির অভিভাবক প্রতিনিধি হেলাল উদ্দিন আহমদ অভিযোগ করে বলেন, ইয়াবার গডফাদার ও জামায়াত ক্যাডার আকবর আহমদকে কমিটিতে শিক্ষানুরাগী না রাখার জন্য তিনি জোরালো প্রতিবাদ করলেও অদৃশ্যের কারণে তাকে রাখা হয়। তার মতে এলাকার যোগ্যতা সম্পন্ন লোক থাকার পরও একজন অশিক্ষিত ও বিতর্কিত ব্যক্তিকে কমিটিতে রাখা ঠিক হয়নি।

এদিকে খোঁজ খবর নিয়ে জানা যায় সীমান্তে ইয়াবা ব্যবসার নিয়ন্ত্রক আকবর আহমদের বিরুদ্ধে হত্যা, মাদকপাচার, অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড ও কাঠ পাচারে জড়িত থাকার অভিযোগে উখিয়া থানা এবং কক্সবাজার আদালতে একাধিক মামলা রয়েছে। উখিয়া থানার মামলা নং যথাক্রমে- ৮ তারিখ-১৪/০২/২০১৬ইং ধারা ৩০২/ ২০১/ ৩৪/ ৫০(১) দবি ৩৩ তারিখ-২৮/০৬/২০১৫ইং, জিআর ২২৫/১৫। ১৫ তারিখ-১৩/ ০৬/ ২০১৫ইং,  জিআর ২০৭/১৫ইং। ১৮ তারিখ-১৫/০৬/২০১৫ ইং, জিআর ২১০/১৫ ইং। ১৯ তারিখ ২৫/০৫/২০১১ জিআর ১১৫/১১ইং। পিওআর নং-১১ইং। ১৪ তারিখ-২৪/০১/২০১৬ ইং, জিআর-১৪/১৬ ইং। ধারা ৩৪১/৫০৬(২) ৩০৭/২৬১/৩২৪/৩২৩/১৪৯/১৪৮/১৪৭ দবি।

উখিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক মনিরুল হক সাংবাদিকদের বলেন, বর্তমান সরকার জঙ্গিবাদ ও মাদক মুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান করতে দৃঢ়প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন। সে লক্ষে ব্যাপক কাজ করে যাচ্ছে। কিন্তু দুঃখজনক ভাবে বালুখালী কাশেমিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষানুরাগী পদে একজন মাদকের গড়ফাদার এবং অসংখ্য মামলার আসামীকে অন্তর্ভূক্ত করা জাতীর জন্য লজ্জাজনক। স্থানীয় সাবেক মেম্বার আলী আহমদ ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, বিতর্কিত জামায়াত ক্যাডার আকবর আহমদকে কমিটিতে রাখায় সাধারণ জনগণ ও অভিভাবক মহলে ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে। এ ব্যপারে জানতে চাইলে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সবুজ সেন জানান, আকবর আহমদকে শিক্ষানুরাগী হিসাবে কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত করা আমার কোন হাত ছিলনা। এটা কেবল ম্যানেজিং কমিটির সিদ্ধান্ত ক্রমে তা অনুমোদন হয়। সচেতন অভিভাবক মহল অবিলম্বে হত্যা মামলার আসামী ইয়াবার গডফাদারকে কমিটি থেকে বাদ দেওয়ার জন্য ।ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট জোর দাবি জানিয়েছেন।

image_pdfimage_print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *