বান্দরবানে সেনা জোন জামে মসজিদের উদ্বোধন


Bandarban Armi pic-2, 20.2

নিজস্ব প্রতিবেদক,বান্দরবান:

বান্দরবানে পুনর্নির্মিত সেনা জোন জামে মসজিদের উদ্বোধন করা হযেছে। সোমবার পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি প্রধান অতিথি হিসেবে ফিতা কেটে মসজিদের উদ্বোধন করেন।

এসময় ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের  ইসলামিক ফাউন্ডেশনের গভর্নর প্রফেসর ড. আবু রেজা মোহাম্মদ নেজাম উদ্দিন নদভী এমপি ৬৯ পদাতিক ব্রিগ্রেড কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মুহম্মদ যুবায়ের সালেহীন, পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ক্যশৈহ্লা, সদর জোন কমান্ডার লে.কর্ণেল মো.মশিউর রহমান জুয়েল, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক হারুন অর রশীদ,পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায়, পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য মো.শফিকুর রহমান, সদস্য কাজল কান্তি দাশ, পৌর মেয়র মোহাম্মদ ইসলাম বেবী, আল্লামা ফজলুল্লাহ ফাউন্ডেশনের প্রধান পৃষ্ঠপোষক আল জাহরানি আবদুল্লাহ ফয়সাল, পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য লক্ষীপদ দাস, মোজাম্মেল হক বাহাদুরসহ নিরাপত্তাবাহিনীর বিভিন্ন পদমর্যাদার কর্মকর্তা -কর্মচারী  ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

এসময় শুভেচ্ছা বক্তব্য দিতে গিয়ে সদর জোন কমান্ডার লে.কর্ণেল মো.মশিউর রহমান জুয়েল পিএসসি জানান, আনুমানিক ১৯২০ সালে বান্দরবানের সাংগু নদীর পাড়ে চট্টগ্রাম সাতকানিয়ার আমিরাবাদ থেকে আগত ৪জন বিশিষ্ট ব্যক্তিরা মিলিত হয়ে একটি মাটির তৈরি মসজিদ নির্মাণ করে, পরবর্তীতে ১৯৭৮ সালে বান্দরবান সেনা নিবাস প্রতিষ্ঠার সময়ে মাটির তৈরি মসজিদটি নিরাপত্তাবাহিনীর আওতায় চলে আসে, এরপর ১৯৮৭ সালে তৎকালিন মাটির তৈরি মসজিদটিকে পূর্ণ সংস্কার করে টিনশেডের একটি মসজিদে রুপান্তর করা হয়। ১৯৮৭ সাল হতে ২০১৬সাল পর্যন্ত এ মসজিদটি একই অবস্থায়  বিদ্যমান থাকলেও পরবর্তীতে ১১জুন ২০১৬  তারিখে বান্দরবান সদরের তত্ববধানে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি এবং প্রফেসর ড. আবু রেজা মোহাম্মদ নেজাম উদ্দিন নদভী এমপির আন্তরিক প্রচেষ্টায় মসজিদটি পুনর্নির্মাণের জন্য ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন। আর এর মধ্য দিয়ে একবছরের মধ্যে ১তলা বিশিষ্ট মসজিদের কাজ শেষ হয়েছে।

ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ইসলামিক ফাউন্ডেশনের গভর্নর প্রফেসর ড. আবু রেজা মোহাম্মদ নেজাম উদ্দিন নদভী এমপি বলেন, বর্তমান সরকারের উন্নয়নের ছোয়া সর্বত্র লেগেছে। সরকারের উন্নয়নের অংশ হিসেবে পার্বত্য জেলার আনাচে কানাছে আজ মসজিদ, মন্দিরসহ নানান ধর্র্মীয় উপসনালয় প্রতিষ্ঠা হচ্ছে। তিনি সৌদি সরকারের সহযোগিতায় বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে মসজিদ নির্মাণ করায় আল্লামা ফজলুল্লাহ ফাউন্ডেশনের প্রধান পৃষ্ঠপোষক আল জাহরানি আবদুল্লাহ ফয়সাল সৌদি বাদশাকে ধন্যবাদ  প্রকাশ করেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্য দিতে গিয়ে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বলেন, বর্তমান সরকার উন্নয়ন বান্ধব সরকার, সরকারের আন্তরিকতায় আমরা পার্বত্য এলাকার উন্নয়নে আরও বেশি ভূমিকা রাখতে পেরেছি। পার্বত্য এলাকার উন্নয়নে সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন, শিক্ষা, চিকিৎসার উন্নয়ন ও সর্বোপরি ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান নির্মাণে এলাকায় ব্যাপক পরিবর্তন হয়েছে। আগামীতে এলাকার উন্নয়নে আরও বেশ কিছু উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ড করার ঘোষণার পাশাপাশি পুনর্নির্মিত জোন সদর জামে মসজিদের বাকী অসমাপ্ত কাজ পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের অর্থায়নে সমাপ্ত করে দেওয়ার আশ্বাস দেন।

অনুষ্ঠানের শেষে ফিতা কেটে মসজিদের উদ্বোধন ও মসজিদের সম্মুখে বৃক্ষরোপন করেন প্রধান অতিথি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *