বাঘাইছড়ি আমতলী ইউপি চেয়ারম্যানকে আ’লীগ থেকে অব্যাহতি



নিজস্ব প্রতিনিধি:
দলীয় শৃংঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে জেলার বাঘাইছড়ি উপজেলার আমতলী ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি এবং আমতলী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. রাসেল আহম্মদকে (রাসেল চৌধুরী) তার সাংগঠনিক দায়িত্ব ও সকল রাজনীতি কর্মকান্ড থেকে অব্যাহতি দিয়েছে রাঙ্গামাটি জেলা আ’লীগ।

জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক হাজি মুছা মাতব্বর স্বাক্ষরিত গত ২০ অক্টোবর দলীয় এক প্রেস নোটিশে এ আদেশ জারি করা হয়। অব্যাহতি নোটিশে বলা হয়েছে, দলীয় নেতাকর্মী ও আমতলী ইউনিয়ন পরিষদ সদস্যবৃন্দ তার বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ দাখিল করে। তাদের এসব অভিযোগের প্রেক্ষিতে গত ১৭/০৭/২০১৭ ইং জেলা আ’লীগের কার্যকরি সভায় একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। তদন্ত কমিটি গত ২৩/০৭/২০১৭ ইং বাঘাইছড়ি উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ও দলীয় নেতৃবৃন্দের আন্তরিক সহযোগিতায় রাসেল চৌধুরীর বিরুদ্ধে দেওয়া অভিযোগ তদন্ত সম্পন্ন করে।

গত ১৮ অক্টোবর ২০১৭ জেলা আ’লীগের কার্যকরি সভায় রাসেল চৌধুরীর বিরুদ্ধে আনীত অনেকগুলো অভিযোগ পেশ করেন জেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. জমির উদ্দিন। তদন্ত কমিটির রিপোর্টে রাসেল চৌধুরীর বিরুদ্ধে আনীত সকল অভিযোগ সত্য প্রমাণিত হওয়ায় সকল তথ্য জেলা কমিটির নিকট জমা দেন তদন্ত কমিটি। তদন্ত কমিটির রিপোর্ট উপস্থাপনে জেলা আ’লীগের কার্যকরি কমিটির সভায় আলোচনা পর্যালোচনার পর তাকে দলীয় সকল কর্মকান্ড থেকে অব্যাহতি দেওয়া হলো। দলীয়ভাবে তার বিরুদ্ধে গত ২০ অক্টোবর ২০১৭ চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। একই সাথে বাংলাদেশ আ’লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে অব্যাহতির কপি পাঠানো হয়েছে বলে জেলা আ’লীগ সূত্রে জানানো হয়েছে।

সংগঠন সূত্রে আরো জানান, তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগগুলো প্রমাণিত হওয়ায় এবং পরবর্তী নিদের্শ না দেওয়া পর্যন্ত গঠনতন্ত্রের ৪৭(ঞ)ধারা অনুযায়ী তাকে আমতলী ইউনিয়নের সভাপতির পদ সহ বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সকল কর্মকান্ড থেকে অব্যাহতি প্রদানের সর্ব সম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় এবং তার স্থলে উক্ত ইউনিয়ন আ’লীগের সহ-সভাপতি খলিলুর রহমান সভাপতির দায়িত্ব পালন করবেন মর্মে সর্ব সম্মত সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

এ ব্যাপারে ইউপি চেয়ারম্যান রাসেল সাথে মুঠো ফোনে যোগাযোগ করা হলে বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, শুনেছি জেলা আ’লীগ আমাকে অব্যাহতি দিয়েছে। তবে আমি লিখিত কোন কাগজ পত্রাদি এখনো পাইনি। সম্ভবত উপজেলায় অব্যাহতির কাগজ পত্র এসেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *