বাঘাইছড়িতে যুবক অপহরণ, ইউপিডিএফ’র তীব্র নিন্দা


নিজস্ব প্রতিনিধি,

রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলা থেকে মুলায়ন চাকমা (২০) নামের এক যুবককে অপহরণ করেছে দুর্বৃত্তরা।শুক্রবার (১৩এপ্রিল) সকালে ওই উপজেলার ৩৫নং বঙ্গলতলী ইউনিয়ন থেকে তাকে অপহরণ করা হয়।

এদিকে ইউনাইটেড পিপলস ডেমাক্রেটিক ফ্রন্ট’র (ইউপিএফ) রাঙামাটি শাখার সংগঠক সচল চাকমা এবং যুব ফোরামের সংগঠক ধর্মসিং চাকমা এ ঘটনার জন্য পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি সংস্কারকে  (জেএসএস) দায়ী করেছে এবং এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানান।

শুক্রবার (১৩এপ্রিল) গণতান্ত্রিক যুব ফোরাম রাঙামাটি শাখার সদস্য সচিব নিলয় চাকমা স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এসব তথ্য জানা গেছে।

বিবৃতিতে জানানো হয় মুলায়ন চাকমা ঢাকায় একটি ফ্যাক্টরিতে চাকরি করেন। পরিবারের সাথে বিঝু উৎসবে অংশ নিতে তিনি বাড়ি এসেছিলেন।  শুক্রবার বিজু পালনের সময় সোয়া দশটার দিকে তাকে ঝগড়াবিল গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে বন্দুকের মুখে অপহরণ করে জেএসএস সংস্কার’র সশস্ত্র গ্রুপ।

বিবৃতিতে বলা হয়-‘জেএসএস সংস্কারবাদী গ্রুপের চার কুচক্রী তাতিন্দ্র লাল চাকমা ওরফে পেলে, শক্তিমান চাকমা, সুদর্শন চাকমা ও অংশুমান চাকমা তাদের পুরো পার্টিকে কব্জা করে জাতিবিরোধী ধ্বংসাত্বক খেলায় মেতে উঠেছে। তারা একটি কায়েমী স্বার্থবাদী গোষ্ঠীর এজেন্ট হয়ে নব্য মুখোশ বাহিনীকে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে মদদ ও আশ্রয় প্রশয় দিচ্ছে। হিল উইমেন্স ফেডারেশনের নেত্রী মন্টি চাকমা ও দয়াসোনা চাকমাকে জিম্মি করে রাখতে তাদেরকে সহায়তা করছে।’

‘সংস্কারবাদীরা জনগণের অধিকারের পক্ষে, নারী নির্যাতন, ভূমি বেদখল ইত্যাদির বিরুদ্ধে আন্দোলন করা দূরের কথা, মুখে একটি কথাও উচ্চারণ করে না, কিন্তু বিনা কারণে নিজ ভাইয়ের বুকে গুলি চালাতে তাদের হাত এতটুকুও কাঁপে না।’

সংস্কারবাদীদেরকে রাজাকারের ভূমিকা ত্যাগ করে জনগণের ন্যায্য অধিকার আদায়ের আন্দোলনে সামিল হওয়ার আহ্বান জানান সংগঠনটি।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বাঘাইছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমির হোসেন জানান, তার পরিবার থেকে অভিযোগ দায়ের করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *