বাঘাইছড়িতে প্রসীত বিকাশসহ ১৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা


সাজেক প্রতিনিধি:
রাঙ্গামাটি জেলার বাঘাইছড়িতে ইউপিডিএফ(প্রসীত) গ্রুপের বিরুদ্ধে অপহরণ, চাদাঁবাজি, গুম, নির্যাতন, খুন, হামলা ও হুমকি লুটপাটের অভিযোগে বাঘাইছড়ি থানায় মামলা করেছে এক উপজাতি মহিলা।

ইউপিডিএফ প্রধান প্রসীত বিকাশ খীসাকে এক নম্বর আসামী করে গত ১৭ এপ্রিল ১৭জনের নাম উল্লেখ করে তাসোনা চাকমা(৩৩) স্বামী-প্রীতিময় চাকমা বাদী হয়ে বাঘাইছড়ি থানায় মামলা দায়ের করেন।

আসামীরা হলেন ১. ইউপিডিএফ সংগঠনের প্রধান প্রসীত বিকাস খীসা, ২. আনন্দ প্রকাশ চাকমা, ৩. সচিব চাকমা, ৪. শান্তি দেব চাকমা, ৫. রঞ্জনমণি চাকমা, ৬. কাঞ্চন চাকমা, ৭. সুপন চাকমা, ৮. জ্যোতিলাল চাকমা, ৯. রন্জিত চাকমা, ১০. উদয় বিকাশ চাকমা, ১১. বিটু ভূষণ চাকমা, ১২. জ্ঞানজোতি চাকমা, ১৩. কানন চাকমা, ১৪. সুশীল চাকমা, ১৫. ভারত্য চাকমা, ১৬. সূর্যলাল চাকমা ও ১৭. শান্তিরাজ চাকমা।

বাঘাইছড়ি থানায় মামলা নং-০১/০৩, ৪৪৮/৩২৩/৫০৬/৪২৭/৩৭৯/৩৮০ ধারায় মামলাটি বাঘাইছড়ি থানায় এজাহার ভুক্ত করা হয়।

মামলার অভিযোগে তাসোনা চাকমা বলেন, ইউপিডিএফ প্রধান প্রসীত বিকাশ খীসার নির্দেশে গত ১৫এপ্রিল বিকাল সাড়ে ৪টার সময় ৫-৬ এবং ৯-১৭ নং আসামীরা তার বাড়ীতে যায়। বাড়িতে গিয়ে সন্ত্রসীরা তাকে বাড়ী থেকে বের হয়ে আসতে বলে। আমি তখন ভয়ে আমার এক মেয়ে এক ছেলেকে নিয়ে বাড়ী থেকে বেরিয়ে আসি এবং তখন তারা আমার বাড়ীতে ডুকে ভিতরে বিভিন্ন জিনিস পত্র খোজাখুঁজি করছিল।

জিনিসপত্র তছনছ করতে থাকে আধা ঘন্টা পর সবাই বাড়ী থেকে বেরিয়ে আসে এরপর তারা আমাকে এক ঘন্টার মধ্যে এক কাপড়ে এলাকা ছাড়তে বলে না ছাড়লে আমাদের সবাইকে ব্রাশ ফায়ার করে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেয়।

তখন আমার অপরাধ কি জানতে চায়লে তারা আামাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে।এমন অবস্থায় আমি জ্ঞান শূন্য হয়ে পড়ি এবং এক কাপড়ে প্রাণ বাচানোর জন্য নিজের বসত বাড়ী ছেড়ে খাগড়াছড়িতে এক আত্বীয়ের বাসায় পালিয়ে আসি।

এসময় তারা আমার বাড়ী থেকে নগদ ২লক্ষ টাকা, ৩টি স্বর্ণের চেইন, ২জোড়া কানের দুল, ২টি আংটি, ১জোড়া নুপুর ডাকাতি করে নিয়ে যায় সন্ত্রসীরা।

এবিষয়ে বাঘাইছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ আমির হোসেন বলেন, তাসোনা চাকমার অভিযোগের প্রেক্ষিতে আমরা আসামীদের ধরতে পুলিশ তৎপর রয়েছে এবং অধিকাংশ আসামী সাজেক এলাকার হওয়ায় মামলাটি সাজেক থানাতেও পাঠানো হয়েছে।

এবিষয়ে সাজেক থানার অফিসার ইনচার্জ নুরুল আনোয়ার বলেন, আসামীদের ধরতে বাঘাইছড়ি ও সাজেক থানা যৌথ ভাবে জোর অভিযান পরিচালনা করছে যেখানে আসামীদের কথা শোনা যাচ্ছে সেখানেই পুলিশ অভিযান পরিচালনা করছে এবং আসামীদের ধরতে অভিযান অব্যাহত থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *