বাইশারীতে পুত্রবধুর দায়ের করা মামলায় শ্বশুড় গ্রেফতার


 

বাইশারী প্রতিনিধি:

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায় বাইশারী ইউনিয়নের দক্ষিণ বাইশারী গ্রামে পুত্রবধুর দায়ের করা মামলায় শ্বাশুড় নুরুল হাকিম (৬০) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ৪ অক্টোবর বুধবার রাতেই তাকে নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত নুরুল হাকিম দক্ষিণ বাইশারী গ্রামের বাসিন্দা ও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসর প্রাপ্ত শিক্ষক ছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ২ অক্টোবর সোমবার সকাল ৯টার সময় পুত্রবধু নাছিমা বেগম শ্বশুড়কে জলপাই বিক্রি করতে নিষেধ করায় ও গাছ থেকে জলপাই পারতে বাধা দেওয়ায় এই ঘটনার সূত্রপাত হয়।

পুত্রবধু নাছিমা বেগম আলী মিয়া পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক হিসেবে কর্মরত আছেন। তিনি জানান, তার শ্বশুড় নুরুল হাকিমকে জলপাই বিক্রি ও গাছ থেকে জলপাই পারতে বারণ করায় শ্বশুড়, শ্বাশুড়ী উভয়ে তাকে বেদম প্রহার করে এবং বাড়ি ঘরের আসবাবপত্রও ভাংচুর করে।

ওই সময় স্থানীয় লোকজন ছুটে এসে তাকে উদ্ধার করে নাইক্ষ্যংছড়ি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তিনি সুস্থ হওয়ার পর ৪ অক্টোবর বুধবার রাত ৮টা ৫০ মিনিটে শ্বশুড়ের বিরুদ্ধে বাদী হয়ে নাইক্ষ্যংছড়ি থানায় একখানা মামলা দায়ের করেন। মামলা নং- ১, তারিখ- ০৪/১০/২০১৭ইং।

উক্ত ঘটনায় পুলিশ বুধবার রাত সাড়ে দশটার দিকে তাকে নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বাইশারী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ আবু মুসা জানান, পুত্রবধুর দায়ের করা মামলায় শ্বাশুড় নুরুল হাকিমকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

৫ অক্টোবর বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টার সময় গ্রেপ্তার নুরুল হাকিমকে বান্দরবান আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

শ্বাশুড় নুরুল হাকিম জানান, তার ছেলে জসিম উদ্দিনের সাথে দীর্ঘদিন জায়গা সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছে। এছাড়া পিতা-মাতাকে ভরণ-পোষন না দেওয়ায় তিনিও একটি আদালতে ছেলের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

পুলিশ জানায়, গ্রেপ্তারকৃত অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক নুরুল হাকিম দীর্ঘদিন শিক্ষকতা করে আসছে। তাই একজন শিক্ষক হিসেবে ঘটনাটি সুষ্ঠ তদন্ত করে আদালতে প্রতিবেদন পাঠানো হবে।

স্থানীয়রা জানান, পুত্রবধু ও শ্বাশুড়ের মধ্যে দীর্ঘদিন বিরোধ চলে আসছিল। এই নিয়ে এলাকায় কয়েক দফা শালিসী বৈঠকও হয়েছে। কিন্তু কোন ধরনের নিস্পত্তি না হওয়ায় বিরোধ আরো বেড়ে যায়।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *