বাংলাদেশ কেন ফুটবলে এগোতে পারছে না?


শাহজাহান কবির সাজু, পানছড়ি:

রাশিয়ায় এখন চলছে বিশ্ব ফুটবলের মিলনমেলা। বিশ্ব ফুটবল র‌্যাংকিংয়ে শেষের দিকেই রয়েছে আমার প্রিয় বাংলাদেশ। কারণ কি? দেশের ষোল কোটি লোকের মাঝে ষোল জনও কি মানসম্পন্ন খেলোয়াড় নেই।

অথচ এবারের বিশ্বকাপের অংশ নেয়া দল আইসল্যান্ডের লোকসংখ্যা মাত্র তিন লক্ষ পঞ্চাশ হাজার সাতশত দশ জন। ওরা বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করতে পারলে আমরা কেন পারব না?

খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার ভারত সীমান্তবর্তী পানছড়ি উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সম্পাদক হিসেবে বলছি, দেশের ফুটবলের বিপর্যয়ের কারণ তৃণমূল থেকেই।

দেশব্যাপী এখন চলছে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিশুদের নিয়ে আয়োজিত বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা ফুটবল টুর্নামেন্ট। এর উদ্দেশ্য একটাই, তৃণমূল থেকে বাছাই করে দীর্ঘ মেয়াদী প্রশিক্ষণের মাধ্যমে ফুটবলার তৈরী করা। কিন্তু দায়সারা আয়োজন, অনুপযোগী মাঠ, শিশুদের ফুটবলের উপর সাধারণ জ্ঞান না দিয়েই খেলার দিন কোন রকম মাঠে নামিয়ে পরাজয় বরণ করলেই হাসিমুখে বিদায় পর্যন্ত সীমাবদ্ধ।

তাছাড়া বয়স ভিত্তিক খেলোয়াড় বাছাইয়ের ক্ষেত্রেও চলে আত্মীয়করণ। এবারে খাগড়াছড়ি জেলা ক্রীড়া অফিসের আয়োজনে অনুর্ধ্ব ষোল বাছাইয়ে “বাইশ” বছর বয়সী খেলোয়াড়কে চট্টগ্রাম পাঠানোর বিরল দৃষ্টান্ত রয়েছে। অথচ ষোল বছর বয়সী মানসম্পন্ন খেলোয়াড় থাকা সত্বেও আত্মীয়করণের কাছে পরাজয় বরণ করে হতাশ হতে হয়েছে।

ফুটবলের এই বিপর্যয় থেকে বের হতে প্রথমেই তৃণমূলে আনতে হবে স্বচ্ছতা। খেলা শুরুর মাস খানেক পূর্ব থেকেই শিশুদের দিতে হবে ফুটবলের প্রাথমিক ধারনা। থ্রো, ফাউল, পেনাল্টি, কর্ণার, খেলার পজিশন, কোন পদ্ধতিতে খেলবে, মানসম্পন্ন মাঠ ও মানসম্পন্ন ফুটবল নিশ্চিত করতে হবে। খেলার সময় বিশ মিনিট না দিয়ে ন্যুনতম বিরতিসহ এক ঘন্টা দিলে যোগ্যতাসম্পন্ন খেলোয়াড় বের করা যাবে। উপজেলা ভিত্তিক অনুর্ধ্ব-১২, ১৪, ১৬, ১৮ বয়স ভিত্তিক টুর্নামেন্ট চালু রাখতে হবে। দেশের ফুটবল বিশেষজ্ঞদের দিয়ে এসবের তদারকি করাতে হবে।

ইন্টারস্কুল ফুটবলে উপজেলার সকল বিদ্যালয়ের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা। তদুপরি ফেডারেশন থেকে দেশের প্রত্যেকটি উপজেলায় খেলাধুলার সামগ্রী সরবরাহ, প্রাথমিক ও মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের ফুটবলের উপর প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করলেই হয়তো তৃণমূল থেকে সফলতা আসতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *