বাঁকখালী নদী থেকে ভারসাম্যহীন যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার


 

কক্সবাজার প্রতিনিধি:

কক্সবাজার সদরের পিএমখালী মোহসিনিয়াপাড়া এলাকায় বাঁকখালী নদীতে ভাসমান অবস্থায় এক যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তার নাম হাসানুল মান্না (২৮)।

জানা গেছে, শুক্রবার(১৯ জানুয়ারি) সকালে পিএমখালী ইউনিয়নের মোহসিনিয়াপাড়া হাঙর ঘাট এলাকার লোকজন বাঁকখালী নদীতে ভাসমান অবস্থায় একটি লাশ দেখতে পায়। পরে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে স্থানীয়রা লাশটি বাঁকখালীর ওপারে রামু উপজেলার চাকমারকুল ইউনিয়নের মন্থরঘোনা এলাকায় তোলে। পরে রামু থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশটি উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করে।

রামু থানার উপপরিদর্শক সাইদুর রহমান বলেন, স্থানীয় লোকজনের ধারণা সদরের পিএমখালী মোহসিনিয়াপাড়ার হাঙরঘাট এলাকায় বাঁকখালী নদীতে পড়ে যায় ওই যুবক। পরে পানিতে ডুবে মারা যাওয়ার পর ভেসে রামু উপজেলার চাকমারকুল ইউনিয়নের মন্থরঘোনা এলাকায় চলে যায়।

তিনি আরও বলেন, পানিতে ডুবেই মৃত্যু হয়েছে ওই যুবকের। কারণ তার শরীরের কোথাও কোন আঘাতের চিহ্ন দেখা যায়নি। তার পরনে একটি ছেড়া প্যান্ট ও শার্ট ছিল।

পুলিশ সূত্র আরও জানায়, গত বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে মোহসিনিয়াপাড়ার লোকজন নিহত ওই যুবককে সেখানে ঘুরাঘুরি করতে দেখে। তিনি ছিলেন মানসিক ভারসাম্যহীন।

এদিকে শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৩টায় কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে নিহত ওই যুবকের পরিচয় সনাক্ত করেন তার স্বজনেরা। তার নাম হাসানুল মান্না (২৮)। তিনি কক্সবাজার শহরের বৈদ্যঘোনা খাজামঞ্জিল এলাকার মৃত মফিজুর রহমানের ছেলে।

হাসপাতালের মর্গের সামনে ছেলের শোকে বিলাপ করছেন মা রোকসানা বেগম। রোকসানা বেগম (৫০) বলেন, মান্না ছোট বেলা থেকেই মানসিক ভারসাম্যহীন। সারাদিন শহরের বিভিন্ন এলাকায় ঘুরাঘুরি করলেও সন্ধ্যায় নিয়মিত বাড়িতে ফিরে যেত। কিন্তু তিনদিন ধরে কোথাও তার খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। শেষ পর্যন্ত ছেলের লাশ দেখতে পান তিনি। আসলে তার মৃত্যু স্বাভাবিক না হত্যা তা নিয়ে জনমনে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *