ফুটবলের মাধ্যমে বিভেদ নয়, ঐক্য গড়ে তুলতে হবে


নিজস্ব প্রতিবেদক, মাটিরাঙ্গা:

শীতের বিকালে ফুটবলের মাঠে খেলোয়াড়রা উষ্ণতা ছড়িয়েছে এমন মন্তব্য করে গুইমারা রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ কামরুজ্জামান এনডিসি, পিএসসি-জি বলেন, ফুটবলের মাধ্যমে পাহাড়ের সাম্প্রদায়িক-সম্প্রীতি সুদৃঢ় করতে হবে। বর্তমান সময়ে খেলাধুলা হারিয়ে যাচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, যে বয়সে মাঠে থাকার কথা সে বয়সে তারা মোবাইল হাতে বিভিন্ন গেমস খেলছে। যুব সমাজকে খেলাধুলার মাঠে ফিরিয়ে নিতে হবে। তবেই জাতিকে কিছু দেয়া সম্ভব হবে।

মঙ্গলবার বিকালে মাটিরাঙ্গা উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত ‘মাটিরাঙ্গা গোল্ড কাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে’র ফাইনলাল খেলা শেষে চ্যাম্পিয়ন ও রানার্সআপ দলের মধ্যে ট্রফি ও প্রাইজমানি তুলে দেয়ার আগে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ফাইনাল খেলা ও পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে মাটিরাঙ্গা জোন অধিনায়ক লে. কর্ণেল কাজী মো. শামশের উদ্দিন পিএসসি-জি, মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিএম মশিউর রহমান এবং মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মাটিরাঙ্গা পৌরসভার মেয়র মো. শামছুল হক প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

খেলার মাঠে চাকমা, মারমা, বাঙ্গালী বা ত্রিপুরা নয় আমরা সবাই খেলোয়াড়। ফুটবলের মাধ্যমে বিভেদ নয়, ঐক্য গড়ে তুলতে হবে। ফুটবলকে এগিয়ে নিতে সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে। সম্প্রদায়ে-সম্প্রদায়ে ভাগ না করলে জাতি হিসেবে, মানুষ হিসেবে আমরা আলোকিত হবো বলেও মন্তব্য করেন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ কামরুজ্জামান এনডিসি, পিএসসি-জি। এসময় তিনি খুব শীঘ্রই মাটিরাঙ্গায় জোন কাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট আয়োজনেরও ইঙ্গিত দেন।

এসময় মাটিরাঙ্গা উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভুমি) মোহাম্মদ আলী, মাটিরাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ সৈয়দ মো. জাকির হোসেন, মাটিরাঙ্গা উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা শেখ মো. আশরাফ উদ্দিন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা রাজ কুমার শীল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সুভাস চাকমা, মাটিরাঙ্গা সদর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান হিরনজয় ত্রিপুরা, বড়নাল ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আলী আকবর, গোমতি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. ফারুক হোসেন লিটনসহ রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

টুর্নামেন্টের উত্তেজনাপুর্ণ খেলায় বড়নাল ইউনিয়নকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে গোমতি ইউনিয়ন একাদশ। টুর্নামেন্টে এককভাবে ৪টি গোল করে সর্বোচ্চ গোলদাতা নির্বাচিত হয়েছে চ্যাম্পিয়ন গোমতি ইউনিয়নের খোলোয়ার জনি। সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছে চ্যাম্পিয়ন গোমতি ইউনিয়ন’র ফরোয়ার্ড মো. আবদুস ছাত্তার।

মাটিরাঙ্গা মডেল হাই স্কুল মাঠে হাজার হাজার ফুটবল প্রেমী দর্শকের উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত প্রতিদ্বন্দ্বীতাপূর্ণ ফাইনাল খেলায় প্রথমার্ধে কোন দলই গোলের মুখ দেখেনি। খেলার দ্বিতীয়ার্ধের দুই মিনিটের মাথায় প্রথম গোল করে গোমতি ইউনিয়ন একাদশের সাফায়েত। এর তিন মিনিটের মাথায় জনি দ্বিতীয় গোলটি করে দলের বিজয় নিশ্চিত করে। এরপরপরই মাঠে একক আধিপত্য গড়ে তোলে গোমতি ইউনিয়ন একাদশ। দ্বিতীয়ার্ধের ৪০ মিনিটে একের পর এক গোল বড়নালের জালে পাঠিয়ে গোল উৎসব করে গোমতি ইউনিয়ন একাদশ। উত্তেজনাপুর্ণ এ খেলায় ৬-০ গোলে বড়নাল ইউনিয়ন একাদশকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করে উপজেলার ফুটবলের চারনভূমি গোমতি ইউনিয়ন একাদশ।

প্রসঙ্গত, মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিএম মশিউর রহমান’র উদ্যোগে মাটিরাঙ্গার সাতটি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার আটটি দলের অংশগ্রহণে প্রথমবারের মতো আয়োজন করা হয় ‘মাটিরাঙ্গা গোল্ড কাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট’। খাগড়াছড়ির সংষদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এ টুর্নামেন্টের উদ্বাধন করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *