প্রয়াতের শেষ শ্রদ্ধা জানাতে হাজারও পূণ্যার্থীর ঢল


নিজস্ব প্রতিনিধি, মহালছড়ি:

খাগড়াছড়ির মহালছড়ি উপজেলার সিঙ্গিনালা গ্রামের মহামুনি বৌদ্ধ বিহারের বিহারাধ্যক্ষ প্রয়াত ভদন্ত খেমাচারা মহাথের’র অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া অনুষ্ঠান যথাযোগ্য মর্যাদায় সম্পন্ন হয়েছে।  শেষ শ্রদ্ধা জানাতে হাজারো পূণ্যার্থীর ঢল নেমেছে। বিভিন্ন সম্প্রদায়ের হাজারো লোকের সমাগমে এক মিলন মেলায় পরিণত হয়েছে। ধর্মীয় অনুষ্ঠানে বিভিন্ন বিহার থেকে আগত শতাধিক ভিক্ষুর মধ্যে প্রধান সংঘ নায়ক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, মনানন্দ বৌদ্ধ বিহারের বিহারাধ্যক্ষ ভদন্ত শোভনা মহাথের।

শুক্রবার(৩০) সিঙ্গিনালা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে মহামুনি বৌদ্ধ বিহারে দিনব্যাপী এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী।  এছাড়াও বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, মহালছড়ি জোন উপ অধিনায়ক মেজর মেহেদি হাসান, মহালছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান বিমল কান্তি চাকমা, জেলা পরিষদ সদস্য জুয়েল চাকমাসহ হাজারও পূণ্যার্থীর সমাগম ঘটে। দিনের প্রথমার্ধে পঞ্চশীল গ্রহণ, সংঘদান, বুদ্ধমূর্তি দানসহ নানাবিধ দানানুষ্ঠান করা হয়।

দ্বিতীয় পর্বে বিশ^ শান্তি কামনায় ধর্মীয় দেশনা, ধর্মীয় আলোচনা, সোইং নৃত্য ও বাজি ফাটিয়ে শ্মশানে আগুন দেওয়া হয়। দূরদুরান্ত থেকে আসা তৃষ্ণার্থ পূণ্যার্থীদের পিপাসা মেটাতে বিশুদ্ধ পানীয় লেবু ও তরমুজের শরবত পান করতে বিভিন্ন গ্রাম থেকে এসে যুবক-যুবতীরা পৃথক পৃথক স্থানে নিজস্ব ব্যানার নিয়ে অংশ নিয়েছে। পাহাড়ে বৌদ্ধ ধর্মালম্বীদের কোন বৌদ্ধ ভিক্ষু পরলোক গমন করলে বৌদ্ধ সম্প্রদায়েরা এভাবে বিদায় জানান।

প্রসঙ্গত: প্রয়াত ভদন্ত খেমাচারা মহাথের ৭৯ বছর বয়সে গত মাসের ৩ ফেব্রুয়ারি বার্ধক্যজনিত কারণে সিঙ্গিনালা গ্রামের মহামুনি বৌদ্ধ বিহারে পরলোকগত হন। তিনি ভিক্ষু অবস্থায় ৩১ (বর্ষাবাস) ওয়া পর্যন্ত মহামুনি বৌদ্ধ বিহারে অবস্থান করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *