প্রার্থিতা ফেরত পেতে বান্দরবান জেলা বিএনপি সভানেত্রীর আপিল আবেদন


নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান:

আসন্ন সংসদ নির্বাচনে প্রার্থিতা ফিরে পেতে মনোনয়নপত্র বাতিলের বিরুদ্ধে বুধবার আপিল করেছেন বান্দরবান জেলা বিএনপি সভানেত্রী ম্যা মা চিং।

আগামীকাল বৃস্পতিবার ম্যা মাচিং’র আপিল আবেদন নির্বাচন ভবনে আদালতের আদলে শুনানি করার কথা রয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জাবেদ রেজা। তবে স্বতন্ত্র প্রার্থী ডনাই প্রু নেলীও আবেদন করেছে বলে জানা গেছে। আপিলকারীদের মধ্যে বিএনপি ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর সংখ্যাই বেশি বলে জানা গেছে।

সূত্র জানায়, গতকাল আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন ভবনের সামনে অস্থায়ী বুথে আপিল আবেদন জমা দেন ম্যা মাচিং। ঋণখেলাপি, ত্রুটিপূর্ণ মনোনয়ন, ফৌজদারি মামলায় সাজাপ্রাপ্ত হওয়া, হলফনামায় স্বাক্ষর না থাকা, লাভজনক পদে থাকা, আয়কর রিটার্ন দাখিল না করা, সমর্থকদের স্বাক্ষর ও তালিকায় গরমিল এবং সরকারি সেবা সংস্থার বিল পরিশোধ না করাসহ বিভিন্ন বিষয়ে আপিল আবেদন করেন প্রার্থীরা। স্বতন্ত্র প্রার্থীদের ক্ষেত্রে ১ শতাংশ ভোটারের স্বাক্ষর ও তালিকায় গরমিল থাকায় আপিল আবেদন করেন স্বতন্ত্র প্রার্থী ডনাই প্রু নেলী।

দলীয় প্রত্যয়ন না থাকা, হলফনামায় মিথ্যা তথ্য দেওয়া অভিযোগে জেলা বিএনপি সভানেত্রী ম্যা মাচিং মনোনয়ন বাতিল করে রিটার্নিং অফিসার ও বান্দরবানের জেলা প্রশাসক দাউদুল ইসলাম।

রিটার্নিং অফিসার ও বান্দরবানের জেলা প্রশাসক দাউদুল ইসলাম জানিয়েছেন, বিএনপি প্রার্থী সাচিং প্রু জেরী কর্তৃক উত্থাপিত ‘দলীয় মনোনয়ন পত্র সঠিক নয়’ আপত্তির পরিপ্রেক্ষিতে বিএনপি মনোনীত দাবিদার আরেক প্রার্থী ম্যা মাচিংয়ের মনোনয়নপত্র স্থগিত রাখা হয়েছে। পরে বিকেল ৫টায় তার মনোনয়ন বাতিল করা হয়।

জাবেদ রেজা জানিয়েছেন,  ২৬ নভেম্বর ১০০ টাকা স্ট্যাম্পে বান্দরবান ৩০০ নং আসন থেকে দলীয় মনোনয়ন স্বাক্ষর করেন বিএনপির মহা সচিব মির্জ ফখরুল ইসলাম। এটিকে অস্বিকার করে সাচিং প্রু জেরী রিটার্নিং অফিসারের কাছে আবেদন জানান। তার আবেদনের প্রেক্ষিতে রিটার্নিং অফিসার মনোনয়ন বাতিল করে দেন।

তিনি আরও বলেন, সাচিং প্রু জেরী রাজনৈতি প্রজ্ঞার পরিচয় দেননি। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির অংশ হিসেবে বিএনপি নির্বাচনে অংশ নিয়েছে। দল যাকে মনোনয়ন দেবে জেলা বিএনপি তার পক্ষ হয়ে কাজ করবে।

আগামীকাল বৃহস্পতি, শুক্র ও শনিবার এ তিন দিনে সব আপিল আবেদন শুনানি শেষে নিষ্পত্তি করা হবে। আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে ১১ তলায় এ লক্ষ্যে এজলাস প্রধান নির্বাচন কমিশনারকে এম নূরুল হুদা, নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার, রফিকুল ইসলাম, কবিতা খানম ও শাহাদাত হোসেন চৌধুরী এ আপিল শুনানি নেবেন।

প্রসঙ্গত, গত ২ ডিসেম্বর ছিল মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের দিন। যাঁদের মনোনয়নপত্র বৈধ-অবৈধ হয়েছে, তাঁদের আপিলের শুনানি আগামী ৬ ডিসেম্বর থেকে ৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *