প্রথম ধাপে ৩৭৪ রোহিঙ্গাকে নেওয়ার সম্মতি জানালো মিয়ানমার


ডেস্ক রিপোর্ট:

 

অবশেষে প্রথম ধাপে মাত্র ৩৭৪ জন রোহিঙ্গাকে দেশে ফিরিয়ে নেওয়ার ব্যাপারে সম্মতি দিয়েছে মিয়ানমার। রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন চুক্তি অনুযায়ী বাংলাদেশের দেওয়া ৮ হাজার ৩২ জনের প্রথম তালিকা থেকে যাচাই বাছাই শেষে এই তালিকা চূড়ান্ত করেছে মিয়ানমার।

বুধবার (১৪ মার্চ) দুপুরে ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এই তালিকা পাঠানো হয়েছে।

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন চুক্তির পর দু‘দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে যাচাই বাছাইয়ের জন্য ৮ হাজার ৩২ জনের তালিকা উপস্থাপন করেছিল বাংলাদেশ। এই তালিকা থেকে মাত্র  ৩৭৪ জনকে যাচাই-বাছাই করে তাদের তথ্য বাংলাদেশকে হস্তান্তর করেছে মিয়ানমার।  তবে তাদের রাখাইনের অধিবাসী হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, তালিকাভুক্ত এই ৩৭৪ জন ৯০টি পরিবারের সদস্য। যাদেরকে যাচাই বাছাই করা হয়েছে এদের ভেতরে এক বা একাধিক জনকে আরসার সদস্য বলে সন্দেহ করছে। তবে তাদেরকেও তারা ফেরত নিতে চায়।

চুক্তি অনুযায়ী, এখন তাদের জাতিসংঘের কোনও সংস্থার মাধ্যমে ফেরত পাঠাতে হবে।  এজন্য বাংলাদেশ ইতোমধ্যে ইউএনএইচসিআর এর সঙ্গে প্রত্যাবাসন সংক্রান্ত একটি সমঝোতা স্মারক চূড়ান্ত করে ফেলেছে। আশা করা হচ্ছে এটি অতি শিগগির স্বাক্ষরিত হবে।

ফিজিক্যাল অ্যারেজমেন্ট চুক্তিতে বলা হচ্ছে তালিকা হস্তান্তরের দুই মাসের মধ্যে সম্ভব হলে তারা সম্পূর্ণ যাচাই বাছাই প্রক্রিয়া শেষ করবে। যাচাই-বাছাই শেষ হওয়ার একমাসের মধ্যে রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানো যাবে। তবে চুক্তি শর্তানুযায়ী রোহিঙ্গাদের ফেরত যেতে হবে স্বেচ্ছায়।

সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *