পেকুয়ায় সৈকত পাড়া-চৈরভাঙ্গা খালের খনন কাজ দ্রুত চলছে


DSC04845
পেকুয়া প্রতিনিধি :
পেকুয়া উপজেলার সদর ইউনিয়নের মেহেরনামা সৈকত পাড়া-চৈরভাঙ্গা খালের খনন কাজ দ্রুত এগিয়ে চলেছে।

গত কয়েক দিন ধরে প্রতিদিন শতাধিক শ্রমিক খাল কাটার কাজে নিয়োজিত রয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে মাতামুহুরী নদীর পলি জমে সৈকত পাড়া-চৈরভাঙ্গা খালটি নাব্যতা সংকটে পতিত হয়। খালটি ভরাট হওয়ার কারণে প্রতি বছর স্থানীয় হাজার হাজার কৃষক তাদের বোরো চাষের জমিতে পানি সেচ দিতে পারতো না।

অবশেষে চলতি বোরো মৌসুমে কৃষকদের পানি সেচের দুর্ভোগ কমাতে খালটি খননের উদ্যোগ নেন পেকুয়ার ইউএনও মো. মারুফুর রশিদ। আর খাল খননের কাজ সুষ্টুভাবে তদারকী করছেন পেকুয়া উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারাণ সম্পাদক বিডিআর জাহাঙ্গীর আলম।

রোববার দুপুরে সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, সৈকত পাড়া-চৈরভাঙ্গা খাল খননে প্রায় শতাধিক শ্রমিক কাজ করছেন। ইতিমধ্যেই খাল খননের বেশ অগ্রগতি হয়েছে। খালটির খনন কাজ সম্পন্ন হলে মেহেরানামা সৈকত পাড়া, চৈরভাঙ্গা, বলিরপাড়াসহ আরো কয়েকটি গ্রামের শত শত একর বোরো চাষের জমি চলতি মৌসুমে চাষাবাদের আওতায় আসবে।

খালটির খনন কাজ শুরু হওয়ায় নতুন করে আশায় বুক বেঁধেছে স্থানীয় কৃষকরা।

পেকুয়া উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক বিডিআর জাগাঙ্গীর আলম জানান, পেকুয়ার ইউএনওর অক্লান্ত চেষ্টায় মৃতপ্রায় খালটি খনন করা হচ্ছে। খালটি খননের কাজ শেষ হলেই কৃষকরা এ সুফল ভোগ করবেন বলে তিনি মন্তব্য করেছেন।

পেকুয়ার ইউএনও মারুফুর রশিদ খান জানান, কৃষকদের কথা চিন্তা করে সৈকত পাড়া-চৈরভাঙ্গা খালটি খনন করা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই পেকুয়ার বেশ কয়েকটি ভরাট খাল খনন করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *