পাহাড় ধ্বসে প্রকৃতি ও মানুষ কতটুকু দায়ী তা অনুসন্ধানের নিমিত্ত গঠিত কমিটির সভা


নিজস্ব প্রতিনিধি:

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির ২৫তম বৈঠকের সিদ্ধান্তের প্রেক্ষিতে মন্ত্রণালয় হতে তিন পার্বত্য জেলায় সংঘটিত পাহাড় ধ্বসে প্রকৃতি ও মানুষ কতটুকু দায়ী তা অনুসন্ধানের নিমিত্ত গঠিত কমিটির এক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার (১২আগস্ট) সকালে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (সমন্বয়) ও কমিটির আহ্বায়ক মানিক লাল বনিক।

সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উপসচিব (সমন্বয়-২) এএসএম শাহেন রেজা, খাগড়াছড়ি জেলার এডিসি ড. মো. গোফরান ফারুকী, রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা ছাদেক আহমদ, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নুরুজ্জামান, রাঙ্গামাটি অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্টেট মোহাম্মদ শাহাদাৎ হোসেন। রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য সবির কুমার চাকমা।পরিষদের সদস্য রেমলিয়ানা পাংখোয়া, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য মো. আব্দুল জব্বার, রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের নির্বাহী প্রকৌশলী কাজী আব্দুস সামাদ প্রমুখ।

সভায় রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য সবির কুমার চাকমা বলেন, তিন পার্বত্য জেলায় সম্প্রতি যে পাহাড় ধ্বস ও বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তা কাটিয়ে উঠতে অনক সময় লাগবে। বিশেষ করে রাঙ্গামাটিতে শহরের পাশাপাশি অন্যান্য উপজেলায় পাহাড় ধ্বস ও বন্যায় ঘরবাড়ি, ফলদ-বনজ বাগান ও ধান্য জমির যে পরিমান ক্ষতি হয়েছে তা সরোজমিনে গিয়ে না দেখলে বুঝা সম্ভব নয়। তাই শহর এলাকাসহ অন্যান্য উপজেলাগুলোতেও নজর দেওয়ার পাশাপাশি এ জেলার উন্নয়নে পরিষদের বাজেট বৃদ্ধিরও আবেদন জানান তিনি।

গত ১৩জুন তিন পার্বত্য জেলায় পাহাড় ধ্বসের কারণ হিসেবে সভায় বক্তরা, অতিরিক্ত বৃষ্টিপাত, ঘন ঘন বজ্রপাত, অপরিকল্পিতভাবে পাহাড় কেটে ঘরবাড়ি নির্মাণ, বন উজাড়, ভারী যানবাহন, অপটিক্যাল ফাইবার লাইন স্থাপন, রাস্তার পাশে জুম চাষ সহ বিভিন্ন কারণগুলো উপস্থাপন করেন।

image_pdfimage_print

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *