পাহাড়ে সম্প্রীতি স্থাপনে ধর্মীয় নেতাদের ভুমিকা রাখার আহবান জানিয়েছেন মাটিরাঙ্গা জোন অধিনায়ক


21-10-2015_kothinchibor-dan-news-pic-1

নিজস্ব প্রতিবেদক :

ব্যাপক আয়োজন আর উৎসাহ উদ্দিপনার মধ্য দিয়ে মাটিরাঙ্গার বরঝালা মৈত্রী বৌদ্ধ বিহারে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় অনুষ্ঠান দানোত্তম ‘কঠিন চীবর দানোৎসব’ পালিত হয়েছে। শুক্রবার দিনব্যাপী ‘কঠিন চীবর দানোৎসব’ অনুষ্ঠানে ধর্মীয় দ্বেশনা আর ধর্মসভা‘র মধ্য দিয়ে পালিত হয় দিনটি। এর আগে বৃহস্পতিবার বেইন ঘর ও সুতা কাটা উদ্বোধনীর মধ্য দিয়ে দু’দিনব্যাপী ‘কঠিন চীবর দানোৎসব’র উদ্বোধন করেন খাগড়াছড়ির অগ্রমৈত্রী বিদর্শন ভাবনা কেন্দ্রের অধ্যক্ষ ভদন্ত তেজবংশ থের।

‘কঠিন চীবর দানোৎসব’ উপলক্ষ্যে বিহার প্রঙ্গণে আয়োজিত ধর্মসভায় সভাপতিত্ব করেন বরঝালা মৈত্রী বৌদ্ধ বিহারের ভান্তে ভদন্ত সুরিয় মিত্র ভিক্ষু। দিনব্যাপী দানোত্তম কঠিন চীবর দান উৎসবে প্রধান ধর্মদ্বেশক হিসেবে ধর্মদ্বেশনা প্রদান করেন খাগড়াছড়ির অগ্রমৈত্রী বিদর্শন ভাবনা কেন্দ্রের অধ্যক্ষ ভদন্ত তেজবংশ থের। এছাড়াও রাঙ্গামাটির রাজবন বিহারের আবাসিক প্রধান ভদন্ত রত্নজ্যোতি ভিক্ষু ও খাগড়াছড়ি দশবল বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ অগ্রজ্যোতি থের প্রমুখ দেশনা প্রদান করেন।

শুক্রবার বিকারের দিকে বরঝালা মৈত্রী বৌদ্ধ বিহারের কঠিন চীবর দানোৎসব অনুষ্ঠানের মূল পর্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাটিরাঙ্গা জোন অধিনায়ক লে. কর্ণেল মো. জিল্লুর রহমান পিএসসি-জি। চীবর দান অনুষ্ঠানে মাটিরাঙ্গা জোনের জেডএসও মেজর রাহাত আহমেদ, মাটিরাঙ্গা প্রেস ক্লাবের সাধারন সম্পাদক মুজিবুর রহমান ভুইয়া ও যুগ্ম-সম্পাদক সগর চক্রবর্তী কমল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। বরঝালা মৈত্রী বৌদ্ধ বিহার পরিচালনা কমিটির সভাপতি ভুবন মোহন চাকমা ও সাধারণ সম্পাদক বিমল চাকমা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

শত শত বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বী নারী-পুরুষের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত ধর্মসভায় মাটিরাঙ্গা জোন অধিনায়ক লে. কর্ণেল মো. জিল্লুর রহমান বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের শান্তিপ্রিয় উল্লেখ করে বলেন, বৌদ্ধ ধর্ম শান্তির ধর্ম। ধর্মের নামে যারা সন্ত্রাস করছে, তারা বিশ্ব মানবতার শত্রু বলেও মন্তব্য করেন তিনি। পাহাড়ে সাম্প্রদায়িক-সম্প্রীতি রক্ষায় সেনাবাহিনী কাজ করছে জানিয়ে তিনি বলেন, পাহাড়ে সব জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে মানবজাতির সম্প্রীতি স্থাপনে ধর্মীয় নেতাদের ভূমিকা রাখার আহবান জানান।

পরে তিনি বরঝালা মৈত্রী বৌদ্ধ বিহারের ভান্তে ভদন্ত সুরিয় মিত্র ভিক্ষু‘র হাতে বৌদ্ধ ধর্মীয় নেতাদের হাতে মাটিরাঙ্গা জোনের পক্ষ থেকে উপহার সামগ্রী ও নগদ আর্থিক সহায়তা তুলে দেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *