পাহাড়ে যৌন হামলার ঘটনা বৃদ্ধিতে হিল উইমেন্স ফেডারেশন ও পার্বত্য চট্টগ্রাম নারী সংঘের উদ্বেগ প্রকাশ


প্রেস বিজ্ঞপ্তি:

পার্বত্য চট্টগ্রামে পাহাড়ি নারীদের উপর যৌন হামলার ঘটনার বৃদ্ধিতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে হিল উইমেন্স ফেডারেশন ও পার্বত্য চট্টগ্রাম নারী সংঘ।

মঙ্গলবার (৭ আগস্ট) এক যৌথ বিবৃতিতে ওই দুই সংগঠন জানিয়েছে, গত জানুয়ারি থেকে গতকাল পর্যন্ত সাত মাসে পার্বত্য চট্টগ্রামে ১০ জন জুম্ম নারী ধর্ষিত হয়েছেন, এদের মধ্যে ২ জনকে ধর্ষণের পর নির্মমভাবে খুন করা হয়েছে। এছাড়া ৪ জন পাহাড়ি নারী ধর্ষণ প্রচেষ্টার শিকার হয়েছেন।

পার্বত্য চট্টগ্রামের বাইরে সীতাকুণ্ডে দুই ত্রিপুরা কিশোরী এবং রাউজানে বৌদ্ধ মন্দিরের অনাথ আশ্রমে এক মারমা কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে বলে তারা বিবৃতিতে উল্লেখ করেন।

হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সভানেত্রী নিরূপা চাকমা ও পার্বত্য চট্টগ্রাম নারী সংঘের সাধারণ সম্পাদক কাজলী ত্রিপুরা বলেন, ‘পার্বত্য চট্টগ্রামে ধর্ষণ সমতলের মতো কোন সাধারণ সামাজিক ব্যাধি নয়, বরং শাসকগোষ্ঠী পাহাড়ি জনগণের উপর জাতিগত নিপীড়নের হাতিয়ার হিসেবে ধর্ষণ ও যৌন হামলাকে সুপরিকল্পিতভাবে ব্যবহার করে আসছে এবং এই একটি মাত্র কারণে অপরাধীরা জঘন্য অপরাধ করেও পার পেয়ে যাচ্ছে।

নিউজটি সংগঠন বিভাগে প্রকাশ করা হয়েছে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *