পাহাড়ে আঞ্চলিক সংগঠনগুলোকে সংঘাত বন্ধের আহবান জানিয়েছেন ধুতাঙ্গ ভান্তে


নিজস্ব প্রতিনিধি: সংঘাত বন্ধ করে শান্তির পথে ফিরে আসতে পাহাড়ে আঞ্চলিক সংগঠনের প্রতি আহবান জানিয়েছেন বৌদ্ধ ধর্মীয় গুরু ড. এফ দীপংকর মহাথেরো (ধুতাঙ্গ ভান্তে)। তিনি বলেন, হানাহানি করে কখনোই শান্তি আনা সম্ভব নয়। এই জন্য প্রয়োজন ধৈর্য্য সহশীলতা ও মৈত্রীভাব। বুদ্ধের অনুশাসন মেনে নিয়মিত পঞ্চশীল গ্রহণ করে জীবনাচরনের পরামর্শ দেন।

বৃহস্পতিবার বিলাইছড়ি উপজেলা সদরের ধুপশীল মহাশ্মশান ধর্মপ্রিয় আন্তর্জাতিক বিদর্শন ভাবনা কেন্দ্রে ২য় দনোত্তম কঠিন চীবর দানোৎসবে ধর্মীয় দেশনায় ধুতাঙ্গ ভান্তে এ আহ্বান জানান।

ধমীয় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় সদস্য দীপংকর তালুকদার, রাঙ্গামাটি জেলা পরিষদ সদস্য রেমলিয়ানা পাংখোয়া, জেলা পরিষদের সাবেক সদস্য অভিলাস তঞ্চঙ্গ্যা, বিলাইছড়ি উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান জয় সেন তঞ্চঙ্গ্যা, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সুরেশ কান্তি তঞ্চঙ্গ্যা, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ শহিদুল ইসলাম।

দীপংকর তালুকদার তার বক্তব্যে বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলের উন্নয়নে বর্তমান সরকার কাজ করে যাচ্ছে। সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ডে এটি গোষ্ঠী প্রতিনিয়ত বাধাগ্রস্থ করছে। এইভাবে যদি বাধা গ্রস্ত হতে থাকে তাহলে এই অঞ্চলের মানুষ উন্নয়ন কর্মকান্ড থেকে বঞ্চিত হবে।

১৯ অক্টোবর সকালে পঞ্চশীল প্রার্থনা, বুদ্ধমুর্তি দান, সংঘান, অষ্ট পরিস্কার দান সহ নানাবিধ আচার অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে দ্বিতীয় দিনের প্রথম পর্ব শুরু হয়। বিকালে ২৪ ঘন্টায় নির্মিত কঠিন চীবর উৎসর্গের মধ্যে দিয়ে ২ দিন ব্যাপী অনুষ্ঠান মালা শুরু হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *