পাহাড়ে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার ও চাঁদাবাজি বন্ধে সারা দেশের ন্যায় সাঁড়াশি অভিযান চালাতে হবে


দীঘিনালা প্রতিনিধি:

বৃহত্তর পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদের সভাপতি মো. মাইন উদ্দীন বলেছেন, “পার্বত্যাঞ্চলে উপজাতিদের প্রকাশ্যে অস্ত্রের মহড়া চলছে, তারা কোটি-কোটি টাকা চাঁদাবাজিসহ খুন অপহরণ করে যাচ্ছে, যা সারা দেশের মাদকের চেয়েও ভয়ঙ্কর আকার ধারন করছে। তাই মাদক নির্মূল অভিযানের মতো সারা দেশের ন্যয় পার্বত্যাঞ্চলেও সাঁড়াশি অভিযান পরিচালনা করতে হবে।

শনিবার বৃহত্তর পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদ আয়োজিত মাটিরাঙ্গার অপহৃত তিন বাঙ্গালী ব্যবসায়ীকে উদ্ধার এবং উপজাতি সন্ত্রাসী কর্তৃক নিহত সকল বাঙালীদের স্বরণে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

এসময় তিনি আরও বলেন, মহালছড়ি থেকে মাটিরাঙ্গার যে তিনজন বাঙালি ব্যবসায়ীকে অপহরণ করা হয়েছে সেখানেও প্রশাসনের ভূমিকা প্রশ্নবৃদ্ধ। অতি দ্রুত সময়ের মধ্যে তিন বাঙালিকে উদ্ধার করতে প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানান।

এসময় তিনি বাঙালিদের অধিকার আদায়ে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন সংগ্রামে সকলের অংশগ্রহণ করার আহ্বান জানান।

দীঘিনালা উপজেলার হোটেল ইউনিটিতে  ইফতার ও আলোচনা সভায় বৃহত্তর পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদের দীঘিনালা উপজেলা কমিটির সভাপতি মোঃ আল আমিনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, বৃহত্তর পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদের খাগড়াছড়ি জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক এসএম মাসুম রানা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম, সহ সাধারণ সম্পাদক রবিউল, দীঘিনালা উপজেলার সাবেক সভাপতি সাদ্দাম হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মুনসুর আলম প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *