পাগলির বিলে ডাকাতের ছুরিকাঘাত, মালামাল ও টাকা ছিনতাই


উখিয়া প্রতিনিধি:

উখিয়ার ক্রাইম জোন হিসেবে খ্যাত পাগলির বিলে ছিনতাই, মালামাল ডকাতি সহ নানা অপরাধ কর্মকাণ্ড বেড়ে চলছেই। সংঘবদ্ধ চিহিৃত ডাকাত দলের সদস্যরা প্রতিদিন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের মারধর ও চুরিকাঘাত করে মালামাল ছিনতাই করার গুরুতর অভিযোগ উঠেছে। বর্তমানে নিরীহ পথচারী ও গ্রামবাসীরা ডাকাত সিণ্ডিকেটের নিকট জিম্মি হয়ে পড়েছে।

জানা যায়, হলদিয়া পালং ইউনিয়নের মরিচ্যা-পাগলির বিল সড়ক দিয়ে স্থানীয় বাসিন্দারা যাতায়াত সহ নিত্যপণ্য সামগ্রী পরিবহণ করে এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় নিয়ে যায়। এ সুযোগে পাগলির বিল ও ভূত পাড়া কেন্দ্রীক সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসী ও ডাকাত সদস্যরা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে।

অভিযোগে প্রকাশ, রুমখাঁ নতুন পাড়া গ্রামের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী হাজী আব্দুল হক (৬২) ও তার পুত্র ফরিদ আলম (৩৬) কে গত ২৬ মে ভোর সকালে ছুরিকাঘাত করে ডাকাত দলের সদস্যরা টমটম ভর্তি মালামাল ছিনতাই সহ নগদ টাকা ও মোবাইল সেট কেড়ে নিয়ে যায়।

আহত ব্যবসায়ী হাজী আব্দুল হক অভিযোগ করে বলেন, উখিয়ার বাজার হতে সুপারী সহ বিভিন্ন নিত্যপণ্য সামগ্রী ক্রয় করে টমটম যোগে রামুতে বিক্রি করার জন্য যাওয়ার পথে এক দল চিহিৃত ডাকাত পাগলির বিল মসজিদের উত্তর পার্শ্বে গতিরোধ করে ধারালো ছুরিকাঘাত ও মারধরপূর্বক ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকার মালামাল কেড়ে নিয়ে যায়। শুধু তাই নয়, নগদ ১৬ হাজার ৩ শত ৯০ টাকা সহ মোবাইল সেট ছিনতাই করে।

ডাকাত কবলের শিকার ব্যক্তিরা অভিযোগ করে আরও বলেন, বিষয়টি সাবেক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আমিনুল হক আমিনকে একাধিকবার অবহিত করার পর ডাকাতদের কাছ থেকে মালামাল উদ্ধারের আশ্বাস দিয়ে ও পরবর্তীতে তা আর দেয়নি।

এ ব্যাপারে পাগলির বিল ভূত পাড়া গ্রামের মো. হামিদ (৩৫), আবছার উদ্দিন (৩৩), রেজাউল করিম (৩২) ও আমিনুল হককে বিবাদী করে উখিয়া থানায় এজহার দায়ের করেছে বলে জানিয়েছেন বাদী হাজী আব্দুল হক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *