পর্যটক বরণে সাজানো হচ্ছে বান্দরবানের অলি গলি


বান্দরবান প্রতিনিধি:

বছরের শেষ এবং শীতের ছুটি মিলিয়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ থাকবে কিছুদিন। অভিভাবকরাও পাচ্ছেন একটু বিশ্রাম। এই সুযোগে অনেকেই পার্বত্য অঞ্চলে বেড়াতে আসেন।

তাই আসন্ন ছুটিকে কাজে লাগিয়ে পর্যটক বরণে বিভিন্ন রং মিতালীতে সাজানো হচ্ছে বান্দরবানের অতি গলি আর সে লক্ষ্যে কাজ শুরু করেছে বান্দরবান বাজার ব্যাবসায়ী ঐক্য পরিষদ । মঙ্গলবার(২৭ নভেম্বর) সকালে বান্দরবান বাজারে বিভিন্ন দোকানের পুরোনো জড়ার্জীণ সাইনবোর্ড অপসারণ করে নতুন রঙে সাজানোর হয় প্রতিটা গলি ও দোকানের মুখ ।

রং তুলিতে সাজানো ও পরিচ্ছনতা অভিযানে বাজার ঐক্য পরিষদের সকল ব্যাবসায়ীদের সাথে উন্নয়নমূলক কাজে অংশ নিয়ে নিজ হাতে রঙ করে কাজের শুভ উদ্বোধন করেন পৌর মেয়র মোহাম্মদ ইসলাম বেবী।

এ সময় ব্যবসায়ীদের সাথে আরও উপস্থিত ছিলেন প্যানেল ৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর দিলীপ বড়–য়া, বাজার ব্যবসায়ী ঐক্য পরিষদের আহ্বায়ক গিয়াস উদ্দীন মাস্টার, যুগ্ম আহ্বায়ক বিমল কান্তি দাশ , সদস্য সচীব আবু সালেহ , বাজার ঐক্য পরিষদের সদস্য রাজু দাশ সহ বিভিন্ন সংগঠনের ব্যবসায়ীবৃন্দ, সাংবাদিক ও সুশিল সমাজের প্রতিনিধিরা ।

বান্দরবান বাজার ব্যবসায়ী ঐক্য পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক বিমল কান্তি দাশ জানান, পর্যটকরা হলেন বান্দরবানের অতিথি তাদের মনোরঞ্জনের জন্য সাজোনো হচ্ছে রঙ তুলিতে বান্দরবানের অলি গলি । প্রতিবছর এই বান্দরবানে ছুটে আসে পর্যটকরা তাই এই বছর তাদের বরণে এই নতুন উদ্যোগ নিয়েছি, তাছাড়া হোটেল গুলোতে বিভিন্ন ডিসকাউন্ট এর ও ব্যাবস্থা করেছি । আমরা আশা করছি এই বছর প্রচুর পর্যটক বান্দরবানে আসবে, মুখরিত হবে বান্দরবানের প্রতিটা গলি । তাদের বরণে আমরা অপেক্ষায় আছি, আশা করছি এই বছর ভাল পর্যটক হবে বান্দরবানে ।

পৌর মেয়র ইসলাম বেবী জানান, রাস্তার প্রতিটা পাশে আমরা লাইটিং এর ব্যাবস্থা করেছি। বান্দরবান পৌর এলাকা এখন বিভিন্ন রং এর লাইটিং এ সু – সজ্জিত । তাছাড়া আর কয়েক মাস পর শুরু হবে বান্দরবানে বোমাং রাজ পুণ্যাহ, সে উপলক্ষে বান্দরবানে সমাগম হবে ব্যাপক পর্যটক, নির্বাচনের আগে অথবা পরে তার কার্যক্রম ও আমরা গ্রহণ করবো । পর্যটকদের নিরাপত্তা বিধানেও আমরা সচেষ্ট রয়েছি। কড়া নিরাপত্তার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে প্রশাসন বিভাগ থেকে। যাতে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কোনো প্রকার বিরূপ কিছু না হয় সে জন্য পুলিশ, সেনাবাহিনী, বিজিবি ও গোয়েন্দা সংস্থার লোকজন প্রস্তুত আছে।

এই পর্যটনকে কেন্দ্র করে ২২ অক্টোবর হোটেল হিলটনে জেলার ১৪ সংগঠন নিয়ে গঠিত হয় বাজার ব্যাবসায়ী ঐক্য পরিষদ যার কার্যক্রমের অংশ হিসাবে শুরু হয় এই উন্নয়নমূলক অভিযান। পর্যটকদের সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধিতে সামনেও এরকম আরও অনেক পর্যটন বান্ধব কর্মসূচী হাতে আছে বলে জানান বাজার ঐক্য পরিষদের ব্যাবসায়ীরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *