নির্বিকার রাঙামাটি বিএনপি


নিজস্ব প্রতিনিধি:

রাঙামাটিতে পুলিশের বিশেষ অভিযানে জেলা বিএনপির সভাপতিসহ শীর্ষ নেতাদের গ্রেফতারের পর থেকে বিএনপি এখন নির্বিকার।

গ্রেফতার এড়াতে বিএনপির নেতা-কর্মীরা পলাতক রয়েছে। কিছুদিন আগেও জেলা বিএনপির দলীয় কার্যালয়টিতে নেতা-কর্মীদের আনাগোনা থাকলেও গ্রেফতারের ভয়ে নেতারা এখন গাঁ ঢাকা দিয়েছে। তাই দলীয় অফিসটি এখন ফাঁকা।

এমনকি আদালত পাড়ায় পুলিশী গ্রেফতার এড়াতে বিএনপি পন্থী আইনজীবীরাও পলাতক রয়েছে।

এদিকে নাশকতামূলক হামলার রুখে দিতে চলতি বছরের ৫ফেব্রুয়ারি থেকে পুলিশ কয়েকদিন ধরে রাঙামাটিতে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করেছ।

সর্বশেষ শুক্রবার (৯ফেব্রুয়ারি) ভোরে জেলা শহরের ওমদা মিয়া পাড়া থেকে জেলা ছাত্রদলের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মো. হেলালকে নাশকতামূলক হামলার পরিকল্পনাকারী অপরাধের দায়ে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

জেলায় পাঁচদিন বিশেষ অভিযান চালিয়ে এ নিয়ে পুলিশ জেলা বিএনপির সভাপতি, জেলা যুব দলের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক এবং জেলা ছাত্র দলের সভাপতি, সহ-সাংগঠনিকসহ ২০জনকে গ্রেফতার করেছে। তাদের সকলের বিরুদ্ধে নাশকতামূলক হামলার অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

জেলায় যেকোন পরিস্থিতি এড়াতে পুলিশ সতর্কবস্থায় জেলার চারদিকে গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে বিশেষ পাহাড়া অব্যহত রয়েছে।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিশেষ আদালতে বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে ৫বছর কারাদণ্ড প্রদান করার প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় বিএনপির ঘোষণা অনুযায়ী দেশের প্রতিটি জেলায় জুমার নামাজের পর প্রতিবাদ জানানোর কথা থাকলেও রাঙামাটিতে বিএনপি ছিলো নির্বিকার। জেলার কোথাও কোন স্থানে তাদের প্রতিবাদের খবর পাওয়া যায়নি। নেতা-কর্মীরা গ্রেফতার এড়াতে পালিয়ে বেড়াচ্ছে।

তবে সাধারণ মানুষ কয়েক ধরে রাঙামাটিতে আতঙ্কে দিন কাটালেও তেমন কোন উল্লেখযোগ্য ঘটনা ঘটেনি। শনিবার থেকে জেলায় পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে আসছে।

এ বিষয়ে রাঙামাটির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মোহাম্মদ সাফিউল সারোয়ার জানান, রাঙামাটির যেকোন অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে পুরো জেলায় গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। সকল পরিস্থিতি মোকাবেলায় পুলিশ প্রস্তুত রয়েছে বলেও জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *