নির্বাচনের আগের দিন নানিয়ারচরে চাল ব্যবসায়ী অপহরণ


নিজস্ব প্রতিনিধি / রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি:

রাঙ্গামাটি নানিয়ারচর উপজেলা পরিষদের উপ-নির্বাচনের আগের দিন ছায়াধন চাকমা (৪৫) নামের এক ব্যবসায়ীকে অপহরণের অভিযোগ উঠেছে। অপহৃত ছায়াধন চাকমা উপজেলার সাপমারা গ্রামের তুষ্টমনি চাকমার ছেলে বলে জানা গেছে।

মঙ্গলবার (২৪ জুলাই) সকালের দিকে নানিয়ারচর বাজার থেকে ওই ব্যক্তিকে অপহরণ করা হয়েছে বলে ইউপিডিএফ প্রসীত দল সমর্থিত নব্য মুখোশ বাহিনী (ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিক) প্রতিরোধ কমিটির আহ্বায়ক জ্যোতি লাল চাকমা এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানান।

সংগঠনটির সদস্য সচিব পরান ধন চাকমা স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জ্যোতি লাল উল্লেখ করেন, মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে নানিয়ারচর বাজারে চাল বিক্রি করার সময় ঝিমিত চাকমার নেতৃত্বে নব্য মুখোশ বাহিনী (গণতান্ত্রিক ইউপিডিএফ) ও সংস্কারপন্থী জেএসএস-এর ৪ সন্ত্রাসী অস্ত্রের মুখে ছায়াধন চাকমাকে অপহরণ করে তাদের আস্তানা উপজেলার গুল্যাছড়ির দিকে নিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে নব্য মুখোশ বাহিনী প্রতিরোধ কমিটির সদস্য সচিব পরান ধন চাকমা ঘটনার তীব্র নিন্দা জানান এবং উপ-নির্বাচনকে ঘিরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ব্যাপক উপস্থিতির মধ্যেও এ অপহরণের ঘটনায় তিনি উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

তিনি অভিলম্বে অপহৃত ছায়াধন চাকমাকে উদ্ধার করে সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে জরুরী পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানিয়েছেন।

তবে এ ঘটনার সাথে জড়িত নয় বলে জানিয়েছে জেএসএস সংস্কার এবং গণতান্ত্রিক ইউপিডিএফ বর্মা গ্রুপের সদস্যরা। সংগঠন দুটি জানায়, নির্বাচনের আগে একটি স্বার্থনেষী মহল অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে এ ধরণের ঘটনা ঘটাচ্ছে।

নানিয়ারচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল লতিফ জানান, এ ব্যাপারে কেউ কোন অভিযোগ দায়ের করেনি। অভিযোগ পেলে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এদিকে রাত পোহালেই রাঙ্গামাটি  নানিয়ারচর উপজেলার চেয়ারম্যান পদে উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ করা হবে। নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে তিনজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। এরা হচ্ছেন, প্রগতি চাকমা, প্রনতি রঞ্জন চাকমা এবং কল্পনা চাকমা।

নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার সাইদুর রহমান জানান, নির্বাচনে মোট ১৪টি কেন্দ্রে ৩২  হাজার ৮ শত ৫৪জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। সুষ্ঠু ভাবে ভোট গ্রহণের লক্ষ্যে ১৪জন প্রিজাইডিং অফিসার, ১৬৬জন সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার এবং ১৬৬জন পোলিং অফিসারকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

নির্বাচনের বিষয় নিয়ে রাঙ্গামাটি পুলিশ সুপার আলমগীর কবির জানান, নির্বাচনে প্রতিটি কেন্দ্রে এবং বাইরে পর্যাপ্ত পরিমাণে নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হয়েছে। নির্বাচনে মোট ১৪জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের পাশাপাশি স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসাবে বিজিবির সদস্যরা দায়িত্ব পালন করবেন।

অপরদিকে, সন্ত্রাসের জনপদ এবং বিবাদমান পার্বত্য চট্টগ্রামের স্থানীয় সশস্ত্র রাজনৈতিক দলের নিয়ন্ত্রণে থাকায় এ উপজেলার চেয়ারম্যান পদের উপ- নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি এ প্রধান দুটি রাজনৈতিক দলসহ অন্যান্য জাতীয় রাজনৈতিক দলের পক্ষ থেকে কোন প্রার্থী দেয়া হয়নি বলে জানিয়েছে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি’র শীর্ষ নেতারা।

উল্লেখ্য, গত ৩মে নানিয়ারচর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ্যাড. শক্তিমান চাকমা সন্ত্রাসী কতৃর্ক নিহত হলে চেয়ারম্যানের পদটি শুন্য হয়। উপজেলা পরিষদের ভাইস- চেয়ারম্যান কোয়ালিটি চাকমা অন্তবর্তীকালীন সময়ের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *